Opu Hasnat

আজ ৮ এপ্রিল বুধবার ২০২০,

সুনামগঞ্জে উৎসব মুখর পরিবেশে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জে উৎসব মুখর পরিবেশে  স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত

সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার জয়কলস উজানীগাও সরকারি রশিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও হাজী আক্রম আলী দাখিল মাদ্রাসায় জাকজমকপূর্ণ আয়োজনে শিক্ষার্থীদের ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার  সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। স্টুডেন্ট কেবিনেট  নির্বাচনে জয়কলস উজানীগাও সরকারি রশিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৭ জন প্রার্থীর মধ্যে নির্বাচনে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ২টি শাখায় নাজমুল হাসান নাইম ও জাকির হোসেন বিজয়ী হয়। সপ্তম শ্রেণীতে বিজয়ী হয় জান্নাতুন ফেরদৌস, অষ্টম শ্রেণীতে বিজয়ী হয় তামান্না বেগম, নবম শ্রেণীতে ২টি শাখাতে সাদিয়া মিলি হাজিরা ও অপু দাস বিজয়ী হয় এবং দশম শ্রেণীতে ২টি শাখায় বিজয়ী হয় আব্দুর রাজ্জাক ও চিন্ময় চক্রবর্তী । 

এদিকে হাজী আক্রম আলী দাখিল মাদ্রাসায়  ১৯৩জন ভোটরের মধ্যে প্রার্থী হয় ১৩ জন। এর মধ্যে ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে ৩ জন ছাত্রী, ৭ম শ্রেণি থেকে ১জন ছাত্র ও ২জন ছাত্রী, ৮ম শ্রেণি থেকে ২জন ছাত্র ও ১জন ছাত্রী, ৯ম শ্রেণি থেকে ২জন ছাত্রী এবং ১০ম শ্রেণি থেকে ২জন ছাত্র প্রতিদ্ব›দ্বীতা করেন। নির্বাচনে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ৭৮ভোট পেয়ে নাজুফা আক্তার সুরাইয়া বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী জাকিয়া মমতাজ সাদিয়া পেয়েছে ৩৪ভোট। সপ্তম শ্রেণীতে ৬৫ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে নাহিদ খান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মায়মুনা আক্তার পেয়েছে ৪৭ভোট। অষ্টম শ্রেণীতে ১১৪ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে কাজী হুমায়রা মমতাজ মারিয়া। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোশাররফ হোসেন পেয়েছে ৯১ভোট। নবম শ্রেণীতে ১৪৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে তাছরিফা বেগম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আরিফা আক্তার জলি পেয়েছে ১৩২ ভোট এবং দশম শ্রেণীতে বিন ইয়ামিন ১৬১ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শাকিল আহমদ পেয়েছে ১১৫ভোট। উক্ত স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট প্রয়োগ করেন।
    
এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার নুরে আলম সিদ্দিকী বলেন, উপজেলার প্রত্যেকটি স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে  শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট প্রয়োগ করেছে।  এতে করে আগামী দিনে জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনসহ বিভিন্ন নির্বাচনে তারা অংশগ্রহণ করার শিক্ষা অর্জন করতে সক্ষম হবে। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর