Opu Hasnat

আজ ২৫ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার ২০২০,

কালকিনিতে গ্রামবাসীর উপর হামলায় আহত ২০ মাদারীপুর

কালকিনিতে গ্রামবাসীর উপর হামলায় আহত ২০

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মাদারীপুরের কালকিনিতে গ্রামবাসীর উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে মহিলাসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার সকালে ঘন্টাব্যাপী হামলার ঘটনা ঘটে। তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাসুত্রে জানাগেছে, জেলা সদর উপজেলার ঝাউদি ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেনের সঙ্গে পার্শবর্তী কালকিনি উপজেলার আলীনগর এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের মীরাকান্দি গ্রামের ইউপি সদস্য আলমগীর চৌকিদারের দীর্ঘদিন ধরে পূর্ব শত্রুতা চলে আসছে। এর জের ধরে হঠাৎ করে ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেনের নেতৃত্বে কালাম, জালাল ও মামুন শরীফসহ বেশ কয়েকজন মিলে তাদের দলবল নিয়ে দেশী অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ইউপি সদস্য আলমগীর চৌকিদারের লোকজনের উপর প্রথমে অতর্কিতভাবে হামলা চালানো হয়। এসময় হামলাকারীদের  স্থানীয় গ্রামবাসীরা বাঁধা দিলে তাদের উপর ও দফায়-দফায় হামলা চালানো হয়। পরে এ নিয়ে উভয় পক্ষই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জরিয়ে পরেন। এতে মহিলাসহ গুরুতর আহত হয় জালাল চৌকিদার (৪০), সজিব চৌকিদার (৪০), হিজহুল চৌকিদার (৩৫), সাজ্জাদ (৩৭), জুয়েল (৪৫), মান্নান চৌকিদার (৪৬), আনোয়ার (৩৯), জামেলা বেগম (৬০) ও হানিফ বেপারীসহ ২০ জন। 

আহতদেরকে প্রথমে কালকিনি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে রেফার করা হয়। পরে খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

ইউপি সদস্য আলমগীর চৌকিদার বলেন, বিনা কারনে আমার লোকজন ও গ্রামবাসীর উপর হামলা চালিয়েছে আবুল চেয়ারম্যানের লোকজন।

তবে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেনের দাবি, আমি হামলা করিনি আমার লোকজনের উপর হামলা চালানো হয়েছে।

আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মিলন, পার্শবর্তী জেলা সদর উপজেলা থেকে এসে কেন আমার এলাকার লোকজনের উপর হামলা চালানো হল তার কোন প্রশ্ন খুঁজে পাচ্ছিনা।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মোঃ নাসিরউদ্দিন মৃধা বলেন, এ মারা-মারির ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।