Opu Hasnat

আজ ২৫ জানুয়ারী শনিবার ২০২০,

বিশ্বের প্রথম ৫জি ডিএসএস ডাটা প্রযুক্তির কল অপো স্মার্টফোনে তথ্য ও প্রযুক্তি

বিশ্বের প্রথম ৫জি ডিএসএস ডাটা প্রযুক্তির কল অপো স্মার্টফোনে

বিশ্বে প্রথমবারের মতো ‘৫জি ডায়নামিক স্পেকট্রাম শেয়ারিং ডাটা’ প্রযুক্তির কল করা হলো অপো স্মার্টফোন থেকে। অপো, এরিকসন, কোয়ালকম টেকনোলজিস, সুইসকম এবং টেলস্ট্রার সমন্বিত উদ্যোগে অপো ৫জি ডিএসএস স্মার্টফোন থেকে সফলভাবে সম্পন্ন করা হয় বিশ্বের প্রথম ডিএসএস ডাটা কল। এর মাধ্যমে সূচনা হয় ৫জি ডিএসএস ডাটা প্রযুক্তির বাণিজ্যিক ব্যবহার।

ডায়নামিক স্পেকট্রাম শেয়ারিং বা ডিএসএস প্রযুক্তি ৪জি ও ৫জি তরঙ্গের সমন্বয় ঘটায়। ফলে বিদ্যমান টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো ব্যবহার করে দ্রুততম সময়েই ৫জি প্রযুক্তির বহুল প্রচলন নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

সুইজারল্যান্ডের সুইসকম এবং অস্ট্রেলিয়ার টেলস্ট্রার ৫জি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে প্রথমবারের মতো কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন এক্স-৫৫ ৫জি মোডেম আরএফ প্রযুক্তি সম্বলতি অপো স্মার্টফোনে দুই দেশের মাঝে ডিএসএস ডাটা কলটি সম্পন্ন করা হয়। এই কলটির জন্য ব্যবহার করা হয় এরিকসন স্পেকট্রাম শেয়ারিং প্রযুক্তি।

সম্প্রতি গ্লোবাল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড অপো এবং এরিকসন যৌথভাবে ৫জি ল্যাব প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়। অপো ও এরিকসনের যৌথ উদ্যোগের প্রথম অর্জন বিশ্বের সর্বপ্রথম ডিএসএস ডাটা কল। বিদ্যমান ৪জি প্রযুক্তির তুলনায় উচ্চগতির ইন্টারনেট সেবা মিলবে ৫জি প্রযুক্তিতে। ফলে বৃদ্ধি পাবে ভিডিও কলিংয়ের মান।

৫জি প্রযুক্তির বাণিজ্যিক ব্যবহার নিশ্চিতে গবেষণা ও উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে অপো। ইতোমধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি ৫জি প্রযুক্তির নানাবিধ প্যাটেন্ট অর্জন, পণ্য তৈরি এবং প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সুইসকমের সহায়তায় ইউরোপে সর্বপ্রথম ৫জি স্মার্টফোন রেনো ৫জি নিয়ে আসে অপো। ৫জি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে যৌথ উদ্যোগে ৫জি প্রযুক্তির বাণিজ্যিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে ভূমিকা রাখছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড অপো।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর