Opu Hasnat

আজ ১৮ জানুয়ারী শনিবার ২০২০,

ভারতে ধর্ষণের পর হত্যা : অভিযুক্ত ৪ জন পুলিশের গুলিতে নিহত আন্তর্জাতিক

ভারতে ধর্ষণের পর হত্যা : অভিযুক্ত ৪ জন পুলিশের গুলিতে নিহত

ভারতের তেলেঙ্গানায় তরুণী এক পশু চিকিৎসককে দলবেঁধে ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার ৪ জন পুলিশের সঙ্গে ‘এনকাউন্টারে’ নিহত হয়েছে। যে স্থান থেকে ওই চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছিল, শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে আটক ৪ জনকে ‘তদন্তের স্বার্থে’ সেখানে নিয়ে যাওয়া হয়। 

পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল সাদনগর মহাসড়কে তাদের অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে দুপক্ষের সংঘর্ষের এক পর্যায়ে গুলিতে নিহত হয় আসামিরা।  গত ২৭ নভেম্বর তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দ্রাবাদে পাওয়া যায় ২৭ বছর বয়সী এক নারী পশু চিকিৎসকের পুড়ে যাওয়া মরদেহ। 

তদন্ত শেষে পুলিশ জানায়, ওই তরুণীর স্কুটারের চাকা ফুটো করে দিয়েছিল ঘাতকরা। চাকা ঠিক করে দেওয়ার কথা বলে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল সেই স্কুটার। তার পর ৪ জন মিলে ধর্ষণ করেছিল তাকে। এর পর খুন করে পেট্রোল-ডিজেল ঢেলে পুড়িয়ে দিয়েছিল তরুণীর মরদেহ।  ২৯ নভেম্বর অভিযুক্ত ৪ জনকেই গ্রেফতার করে তেলেঙ্গানা পুলিশ।

শুক্রবার হায়দ্রাবাদের পুলিশ কমিনশনার দাবি করেছেন, অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে চিকিৎসক ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার ৪ অভিযুক্ত নিহত হয়েছে। ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা প্রকাশ রেড্ডি বলেছেন, আমরা অ্যাম্বুলেন্স ডেকেছিলাম। তবে কোনো রকমের চিকিৎসা সহায়তা পৌঁছানোর আগেই তাদের মৃত্যু হয়। 

গত বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদের কাছে ২৭ বছর বয়সী ওই চিকিৎসকের পোড়া মৃতদেহ পাওয়ার পর তেলেঙ্গানাজুড়ে তুমুল বিক্ষোভ শুরু হয়। পুলিশের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ তোলে মেয়েটির পরিবার।   মামলা নিতে গরিমসির অভিযোগ ওঠায় তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়।

পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলোও এ হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচার এবং দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড চাইছিল।