Opu Hasnat

আজ ১১ আগস্ট মঙ্গলবার ২০২০,

ছাতকে জালালাবাদ গ্যাস অফিসে গ্রাহক ভোগান্তি চরমে সুনামগঞ্জ

ছাতকে জালালাবাদ গ্যাস অফিসে গ্রাহক ভোগান্তি চরমে

সুনামগঞ্জের ছাতক পৌর শহরের কুমনাস্থ জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিষ্ট্রিবিউশন সিষ্টেমস লিমিটেডের কার্যালয় রয়েছে। এ কার্যালয়ের অসাধু কর্মকর্তাদের আচরনে গ্রাহকরা অসন্তোষ্ট। কর্ম দিবসের যে কোন সময় কার্যালয়ে গেলে কর্মকর্তা কর্মচারীদের উপস্থিত পাওয়া যায় না। এ কার্যালয়ের মাধ্যমে আবাসিক গ্যাস ব্যবহারকারী ১৯শ টি, বাণিজ্যিক ৩২টি শিল্প ৪টি ও সিএনজি গ্যাস ব্যবহারকারী ১টি সংযোগ সহ মোট ১৯৩৭টি সংযোগ রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকরা নানা সময় লাইনের দুর্ঘটনা সংযোগ পরিবর্তন সহ গ্যাস সংক্রান্ত নানা প্রয়োজনে কার্যালয়ে গেলে কর্মকর্তা কর্মচারীদের উপস্থিতি একেবারে নগেন্য। এমনকি চিঠিপত্র ও জরুরী কাগজপত্র গ্রহন করাতে গেলেও কোন কর্মকর্তা কর্মচারীদের উপস্থিতি দেখতে পাওয়া যায় না। এতে গ্রাহদের মূল্যবান কাগজপত্র মূল্যহীন হয়ে যায়। ২/১ জন কর্মকর্তাকে পাওয়া গেলেও এ কাজ আমার নয় অমুক অফিসারের দায়িত্বে বলে দায় এড়িয়ে একে অন্যের উপর ছাপিয়ে দিয়ে প্রতিনিয়ত গ্রাহকদের হয়রানী করে যাচ্ছেন। 

মঙ্গলবার অফিস চলাকালীন সময়ে বাবলু নামে একজন গ্রাহক কার্যালয়ে গিয়ে উচ্চ আদালতের একটি আদেশপত্র গ্রহন করার জন্য গেলে ম্যানেজার মাসুদরানা বলেন উচ্চ আদালতের আদেশের চেয়ে আমার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আদেশ বড়। আমি এসব চিঠি গ্রহণ করতে বাধ্য নই। এছাড়া চাকুরী বিধির নিয়ম বর্হিভূত ভাবে অফিস সহকারী জাঙ্গাঙ্গীরের বিরুদ্ধেও গ্রাহকদের সাথে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে। 

এব্যাপারে ম্যানেজার মাসুদরানা একাত্তরের কথাকে বলেন আমার অফিসের জনবল কম থাকায় আমি সঠিক ভাবে অফিস চালাতে পারছিনা। তিনি সিলেট অফিসের অজুহাত দেখিয়ে বলেন সিলেটে আমার বিভিন্ন সভায় যোগদান করতে হয়।