Opu Hasnat

আজ ১৯ জানুয়ারী রবিবার ২০২০,

বই পড়া আন্দোলনে বিনামূল্যে বই যোগান দিচ্ছে রংপুরের আইডিয়া প্রকাশন রংপুর

বই পড়া আন্দোলনে বিনামূল্যে বই যোগান দিচ্ছে রংপুরের আইডিয়া প্রকাশন

‘রুটি মদ ফুরিয়ে যাবে, প্রিয়ার কালো চোখ ঘোলাটে হয়ে যাবে; কিন্তু একখানা বই অনন্ত যৌবনা, যদি তেমন হয় বই।’ বই আমাদের মায়া-মমতা, সহানুভূতি, মানবিক মূল্যবোধ জাগ্রত করে। সত্য ও সুন্দরের পথ দেখায়। বই শাশ্বত ও চিরন্তন সম্পদ। যার সঙ্গে পার্থিব কোনো ধন-সম্পদের তুলনা হতে পারে না। বই প্রকাশ ও পড়ায় উৎসাহিত করতে কাজ করে যাচ্ছে রংপুরের আইডিয়া প্রকাশনের প্রকাশক মাসুদ রানা সাকিল।

বই মানুষের দৃষ্টিভঙ্গিকে প্রসারিত করে, মনকে করে উদার। যার ফলে মানুষের মন হয় সুশোভিত। মানবতার অমল আলোক লুকিয়ে আছে বইয়ের মধ্যে। তাই বই পড়া কর্মসূচিকে বেগবান করতে ৫বছর যাবৎ বিনামূল্যে বই বিতরণ করে যাচ্ছে রংপুর সেন্ট্রাল রোডের প্রকাশনা সংস্থা 'আইডিয়া প্রকাশন'। সংস্থাটি উত্তরাঞ্চলের অবহেলিত ও শিক্ষা বঞ্চিত মানুষকে বইপাঠে উদ্বুদ্ধ করতে বিগত ৫বছরে প্রায় ৫হাজারের বেশি বই বিনামূল্যে বিভিন্ন পাঠাগার ও সংগঠনকে বিতরণ করেছে। তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্ণমালা গ্রন্থাগার, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির অসকস পাঠাগার, দর্শনা পাবলিক লাইব্রেরিসহ বিশটির বেশি গ্রন্থাগারে প্রতি বছর শতাধিক করে বই বিনামূল্যে বিতরণ করে প্রতিষ্ঠানটি প্রকাশক মাসুদ রানা সাকিল। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যায় রংপুর টাউন হল মঞ্চে অনুষ্ঠিত রংপুর সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদের ১৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে ম-লেরহাট উলিপুর কুড়িগ্রামের সশিস পাঠাগারের প্রতিনিধি আহসান হাবিব এর হাতে প্রায় দুই শতাধিক বই বিনামূল্যে প্রদান করে আইডিয়া প্রকাশনের প্রকাশক। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতার রংপুরের আঞ্চলিক পরিচালক ড. মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ, সাবেক সংসদ সদস্য হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, অধ্যাপক মুহম্মদ আলীম উদ্দীন, ছড়াকার ও সাংবাদিক আবু জাফর সাবু, প্রফেসর মোহাম্মদ শাহ আলম, স্বাত্ত্বিক শাহ আল মারুফ, এড জাকিয়া সুলতানা চৈতী প্রমুখ।

আইডিয়া প্রকাশনের প্রকাশক মাসুদ রানা সাকিল জানান, বর্তমান সময়ের আলোকে বলা চলে প্রকাশনা একটি লসজনক প্রতিষ্ঠান। যে কারণে প্রতিবছর সরকার ভর্তুকি দিয়ে প্রকাশকদের কাছ থেকে বই সংগ্রহ করেন। কিন্তু রংপুরের প্রকাশকদের কাছ থেকে বই সংগ্রহের সরকারি কোন পদক্ষেপ নেই। দশ বছর আগে রংপুরে কোন সৃজনশীল প্রকাশনা সংস্থা না থাকায় বই প্রকাশ ও সাহিত্যচর্চায় এ অঞ্চলের মানুষের কষ্টের শেষ ছিলো না। তাই প্রকাশনা লসজনক প্রতিষ্ঠান হওয়া সত্ত্বেও এই দায়িত্ব কাধে তুলে নিয়েছি। ইতোমধ্যে দুইশতাধিক বই প্রকাশও করেছি। যার ৯০শতাংশই এ অঞ্চলের লেখকদের সাহিত্যচর্চায় উৎসাহিত করতে বিনামূল্যে প্রকাশ করা।