Opu Hasnat

আজ ১৯ জানুয়ারী রবিবার ২০২০,

সাংসদ লিটন হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসি আইন ও আদালতগাইবান্ধা

সাংসদ লিটন হত্যা মামলায় ৭ জনের ফাঁসি

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি আবদুল কাদের খানসহ ৭ আসামির ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় ঘোষণা করেন। গত ১৯ নভেম্বর রায় ঘোষনার জন্য আজকের দিন ঠিক করেন আদালাত।

দন্ডপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন- কাদের খানের একান্ড সচিব শামসুজ্জোহা, গাড়িচালক আবদুল হান্নান, গৃহকর্মী শাহীন মিয়া, মেহেদী হাসান, আনোয়ারুল ইসলাম রানা ও চন্দন কুমার সরকার। রায় ঘোষনার সময় ছয় আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। আসামি চন্দন সরকার পলাতক।

২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের সাহাবাজ গ্রামের মাস্টারপাড়ার নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত হন মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় অজ্ঞাত পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা করেন লিটনের বড় বোন ফাহমিদা কাকলী বুলবুল। তদন্ত শেষে কাদের খাঁনসহ আটজনের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ৩০ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ২০১৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি কাদের খানকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর থেকে তিনি গাইবান্ধা জেলা কারাগারে আছেন।

আলোচিত এ মামলায় ২০১৮ সালের ৮ এপ্রিল প্রথম দফায় সাক্ষ‌্য গ্রহণ শুরু হয়। মামলায় বাদী, নিহতের স্ত্রী ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ ৫৯ জনের সাক্ষ‌্য গ্রহণ করেছেন আদালত। ৩১ অক্টোবর মামলার সাক্ষ‌্য গ্রহণ শেষ হয়।

২০১৮ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। পরে পর্যায়ক্রমে কারাগারে থাকা আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থন শুনানি হয় আদালতে।