Opu Hasnat

আজ ১০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

জামালগঞ্জে খেলার মাঠ ও গোচারন ভূমি দখলের অভিযোগ সুনামগঞ্জ

জামালগঞ্জে খেলার মাঠ ও গোচারন ভূমি দখলের অভিযোগ

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ফেনারবাঁক ইউনিয়নের কামারগাঁও মৌজার ১৮৪ দাগের কামারগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ, গোচারণ ভূমি ও গ্রামের বোর ফসল উত্তোলনের একমাত্র ব্যবহৃত স্থানটি একটি চক্র দখল করার পায়তারা চালাচ্ছে। এ নিয়ে গত ১৪ নভেম্বর ২০১৯ ইং তারিখে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে ৮৬ জন গ্রামবাসীর স্বাক্ষরে খেলার মাঠ ও গোচারণ ভূমি দখল কারীদের বিরোদ্দে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের আবেদন করেন। 

আবেদন কারীগন উল্ল্যেখ করেন কামারগাঁও গ্রামের ১০০ টি পরিবারের ছাত্রছাত্রী ও শিশু কিশোররা এখানে খেলা করে, গবাদি পশুচারণ সহ ফসল উত্তোলনের সময় কৃষকরা ব্যবহার করে থাকেন। একই গ্রামের আলেকচান নামক ব্যাক্তি রাতের অন্ধকারে মাঠি কেটে বাঁশ পুতে গৃহ নির্মানের পায়তারা করছে। গ্রামবাসীগন সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে খেলার মাঠ ও গোচারণ ভূমি আত্মসাৎকারীদের বিরুদ্ধে সরজমিনে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানান। 

কামারগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মঞ্জুলাল তালুকদার বলেন গ্রামের সৃষ্টি থেকেই বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ হিসেবে এই স্থানটি ব্যবহার করছি। গ্রামের মুরুব্বি আব্দুস সাত্তার বলেন, এই মাঠ কেহ দখল করে নিলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম খেলাধুলার স্থান না পেয়ে গৃহবন্দি হয়ে থাকবে, আমরা চাই সরকার এই মাঠটি অবৈধ দখলদার ও পায়তারাকারীদের বিরুদ্দে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করে মাঠটি উন্মুক্ত রাখুক, মাঠটিকে গৃহ নির্মান করে দখল করলে শিক্ষার্থীদের বিনোদন বিনষ্ট হবে। ফেনারবাঁক ইউপি চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু তালুকদার বলেন, কামারগাঁও স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জন্য এই খেলার মাঠ ও গোচারণভূমি রক্ষায় সরকার যেন সুক্ষ দৃষ্টিতে জরুরি প্রদক্ষেপ গ্রহণ করে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয়াংকা পাল বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা কে সার্ভেয়ার নিয়ে সরজমিনে তদন্ত করার দ্বায়িত্ব দিয়েছি, প্রতিবেদন দিলেই আইনি আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব।   

এই বিভাগের অন্যান্য খবর