Opu Hasnat

আজ ৮ ডিসেম্বর রবিবার ২০১৯,

মুগদাপাড়ায় সচেতন মহিলা সমাজের উদ্যোগে ঝাড়ু মিছিল রাজধানী

মুগদাপাড়ায় সচেতন মহিলা সমাজের উদ্যোগে ঝাড়ু মিছিল

মুগদাপাড়া সচেতন মহিলা সমাজের উদ্যোগে এক ঝাড়ু মিছিল করা হয়েছে। ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বি এম সিরাজুল ইসলাম এর প্রিয় পাত্র বদরুল এর অপকর্মের বিরুদ্ধে এই ঝাড়ু মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সভ্যতার ফুল ফোটানো হয় যেখানে তাকে বিদ্যালয় বলে। সেই বিদ্যালয়ে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে শত নারীর ইজ্জত হরন করেছে বদরুল। সে নিজেকে নারীদের কাছে মুগদাপারা কাজী জাফর আহমেদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির একজন সদস্য হিসেবে পরিচয় দিত। অথচ বার বার নির্বাচিত ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির সাথে কথা বলে জানা যায় স্কুলের কোন রকম কার্যক্রমের সাথে বদরুলের সংশ্লিষ্টতা নাই। 

এ ঘটনার পর তার সহধর্মিণীর সাথে কথা বলে জানা যায়, তার স্বামীর এধরনের কুকীর্তি সে আসভ্যতার ফুল ফোটানো হয় যেখানে তাকে বিদ্যালয় বলে। সেই বিদ্যালয়ে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে শত নারীর ইজ্জত হরন করেছে বদরুল। সে নিজেকে নারীদের কাছে মুগদাপারা কাজী জাফর আহমেদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির একজন সদস্য হিসেবে পরিচয় দিত। অথচ বার বার নির্বাচিত ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির সাথে কথা বলে জানা যায়, স্কুলের কোনরকম কার্যক্রমের সাথে বদরুলের সংশ্লিষ্টতা নাই। এ ঘটনার পর তার সহধর্মিণীর সাথে কথা বলে জানা যায় তার স্বামীর এধরনের কুকীর্তি সে আগে থেকেই জানতো কিন্ত তার সংসার ভেংগে যাবে বিধায় সে বদরুলের সকল অপকর্মে নিরবে সহ্য করেছে। তাই আজ এই আন্দোলনের সাথে বদরুলের সহধর্মিণীও একমত পোষন করেছে, সে চায় বদরুলের পরিবার ও নিষ্পাপ শিশু যাতে স্কুলে যেতে পারে ও পরিবারের লোকজন সবাইকে মুখ দেখাতে পারে তাই অনতিবিলম্বে বদরুলকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনাহোক। সে চায় বদরুলের পরিবার ও নিষ্পাপ শিশু যাতে স্কুলে যেতে পারে ও পরিবারের লোকজন সবাইকে মুখ দেখাতে পারে তাই অনতিবিলম্বে বদরুলকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনাহোক।

বদরুল সম্পর্কে স্থানীয় আওয়ামীলীগ এর একজন নেতা বলেন, যার নামের শুরুতেই বদ শদ্বটি যুক্ত সেতো এ ধরণের কুকর্ম করবে এটাই স্বাভাবিক।