Opu Hasnat

আজ ১৪ ডিসেম্বর শনিবার ২০১৯,

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেড়িবাঁধ

মোরেলগঞ্জের ফাসিয়তলা খালে জলাবদ্ধতা, ১৫ হাজার মানুষ পানিবন্ধি বাগেরহাট

মোরেলগঞ্জের ফাসিয়তলা খালে জলাবদ্ধতা, ১৫ হাজার মানুষ পানিবন্ধি

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ সন্ন্যাসী লঞ্চঘাট থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মানাধীন ৩৫/১ পোল্টার বেড়িবাঁধ দিয়ে প্রবাহমান ফাসিয়াতলা খাল বন্ধ করে দেয়ায় এলাকার ১৫ হাজার মানুষ পানিবন্ধি হয়ে পড়েছে। ফলে এলাকায় জলাবদ্ধতা, পানি পঁচে দুর্গন্ধ, ফসলহানী ও বিভিন্ন রোগের প্রার্দুভাব দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, ১৯৬২ থেকে ১৯৬৬ সালের মধ্যে নদীর তীরবর্তী ২.৫ কিলোমিটারের মধ্যে ৩৫/১ পোল্টার বেধিবাঁধে পানি নিষ্কাশনের জন্য ৩টি স্লুইস গেট ছিল । ১৯৯৮ সালের এই পয়েন্টে মাত্র একটি গেট রাখা হয়। কিন্তু ২০১৭-১৮ অর্থবছরে চলমান নির্মানাধীন বেড়িবাঁধে কোন স্লুইস গেট রাখা হয়নি। ফলে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের জলোচ্ছ্বাসে নদীর তীরবর্তী আমতলী, পূর্ব বরিশাল, মধ্য বরিশাল এ তিন গ্রামের একমাত্র ভরসা ফাসিয়াতলা খালটি জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। 

এলাকাবাসি অভিযোগ, এ জলাবদ্ধতার কারনে ঐ খালের পানি পঁচে গিয়ে ব্যাপক দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। তাছাড়া ফসলি ক্ষেতে পানি জমে ৪-৫ হাজার বিঘার জমির ফসল নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। পানির দুর্গন্ধে বাড়িতে বসবাস করা দায় হয়ে পড়েছে। ক্ষেত-খামার ও বাড়ির কাজে এ পানি ব্যবহার করতে না পেরে ভোগান্তি আরো বেড়েছে। এলাকার মহিলা-শিশু  সহ বিভিন্ন লোক পানিবাহিত রোগে ভুগছে। 

এ অবস্থা থেকে উত্তোরনে কর্তপক্ষের স্লুইস গেট নির্মানের কোন উদ্যোগ না থাকায় ভূক্তভোগী শত শত জনসাধারণ খালের দূষিত পানি অপসারণে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে সোমবার থেকে বেধিবাঁধ কেটে পানি অপসারণের উদ্যোগ গ্রহন করেছে।  

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বলেন, জলবদ্ধতার বিষয়ে কেউ জানায়নি তবে আজ এসিল্যান্ডকে পাঠিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

পানিউন্নয়ন বোর্ড খুলনার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল আলম বলেন, অনুমোদিত ডিজাইন অনুসারে বেডিবাঁধের কাজ চলছে। জলাবদ্ধতার বিষয়ে কেউ জানায়নি। সরেজমিনে দেখে জনভোগান্তি লাঘবে যা করা দরকার তাই করা হবে। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর