Opu Hasnat

আজ ১৪ ডিসেম্বর শনিবার ২০১৯,

ফরিদপুরে পেঁয়াজ চাষীদের ব্যস্ত সময়, বাজারে আসতে লাগবে ১৫দিন কৃষি সংবাদফরিদপুর

ফরিদপুরে পেঁয়াজ চাষীদের ব্যস্ত সময়, বাজারে আসতে লাগবে ১৫দিন

ফরিদপুরের মাটি পেঁয়াজ চাষে খুব উর্বর হওয়ার কারনে সারাদেশের পেঁয়াজ উৎপাদনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জেলা ফরিদপুর। এখানকার পেঁয়াজ চাষীরা মনে করেন উন্নত জাতের পেঁয়াজ বীজ সরবরাহের মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি মৌসুমে উৎপাদিত পেঁয়াজ সংরক্ষণের সুব্যবস্থা নিশ্চিত করে সারা বছরের চাহিদা মেটানো যেতে পারে। এরই মধ্যে কৃষকেরা মুড়িকাটা পেঁয়াজ ও হালি পেঁয়াজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মাঠে। তবে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা পেলে তারা আরো বেশী ভূমিকা নিতে চাই পেঁয়াজ চাষে। 

এদিকে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের দাবী, তারা কৃষকদের পেয়াজ চাষে সব ধরনের সাহায্য ও সহযোগিতা করছেন এ ব্যাপারে।  

জানাযায় গত বছর ফরিদপুরের নয়টি উপজেলায় মুড়ি কাটা ও হালি পেয়াজ মিলিয়ে প্রায় ৩৬ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজের আবাদ করা হয়েছিলো। আর এবার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৭,২৫০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করার। এরই মধ্যে জেলার সদর উপজেলার ভাষানচর, অম্বিকাপুর, চরমাধবদিয়া, তালতলা, মমিনখার হাট এলাকায় মুড়ি পেঁয়াজ চাষ শুরু হয়েছে। একই সাথে সালথা ও নগরকান্দাসহ অন্য উপজেলায় মুড়ি কাটা পেঁয়াজ বাজারে উঠবে আর ১৫দিনের পর থেকে। এই পেঁয়াজ বাজারে উঠা শুরু হলে পেঁয়াজের দাম কমে আসবে বলে মনে করছেন এখানকার কৃষকরা।  

এছাড়া পেঁয়াজের উপজেলা হিসেবে খ্যাত নগরকান্দা ও সালথাসহ অন্য উপজেলা জুরে চলছে হালি পেঁয়াজ চাষের জোর প্রস্ততি। এখানকার কৃষকরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন বীজ তলা বানানোর কাজে। এই বীজ তলা থেকে চারা তুলে কদিন বাদে তারা শুরু করবেন পেঁয়াজ লাগানো। হালি পেঁয়াজ বাজারে আসবে ফাল্গুন মাস থেকে চৈত্র মাসের দিকে। তখন পেঁয়াজের দাম কমে আসবে জানালেন এই এলাকার কৃষকরা। তবে গত বছরে পেঁয়াজের দাম তেমন না থাকা ও লোকশান গোনায় অনেকে এই চাষে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। এ কারনে যে হারে পেঁয়াজ চাষ হওয়ার কথা ছিলো তা হয়নি এবার।   

কৃষকরা জানান, সরকার কম সুদে কৃষি লোনসহ পেঁয়াজ চাষে সার কীটনাশকসহ যাবতীয় বিষয়ে সহযোগিতা করলে এই চাষে কৃষকরা আবার ঘুড়ে দাড়াবে। এছাড়া দামের ব্যাপারে আর যাতে কৃষকদের সমস্যায় পড়তে না হয় এটাও খেয়াল রাখার কথা বলেন তারা।    

ফরিদপুরের কৃষিসম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক কার্তিক চন্দ্র চক্রবর্তী জানান, ফরিদপুরে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে মুড়ি কাটা পেঁয়াজ উঠতে শুরু করবে। আর এরপর থেকে পেঁয়াজের যে সংকট তা অনেকটা কেটে যাবে বলে জানান তিনি।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, আমি কৃষকদের সাথে মিলিত হচ্ছি ও মাঠ পরিদর্শন করছি। আশা করছি ১৫ দিনের মধ্যে এই সংকট কেটে যাবে। 

এই চাষে জরিত কৃষকদের দাবি, অতিদ্রুত সরকার কৃষকদের মধ্যে নানা ধরনের প্রোনদনা দিয়ে পেঁয়াজ চাষ বাড়ানোয় উৎবদ্ধ্য করবে। একইসাথে আগামী দিনে পেঁয়াজের দাম ও আমদানি দাম সঠিক ভাবে নির্ধারন করতে হবে যাতে করে কৃষক এই চাষে আগ্রহ বাড়ে।