Opu Hasnat

আজ ১২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

বিছালী বাজারে হতদরিদ্র অন্ধের জমিতে ভূমিদস্যুদের কু-দৃষ্টি

নড়াইলে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে সাংবাদিক সম্মেলন নড়াইল

নড়াইলে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে সাংবাদিক সম্মেলন

নড়াইল সদরের বিছালী বাজারের হতদরিদ্র অন্ধ ছবেদ আলীর জমিতে ভূমিদস্যু চক্রের কুদৃষ্টি পড়েছে। তারা অন্ধ ছবেদ আলীর জমি গ্রাস করতে ব্যর্থ হয়ে নানা ভাবে হয়রানী ও অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এতে ক্ষুব্ধ ছবেদ সহ ওই জমির সাথে সংশ্লিষ্টরা ভূমিদস্যুদের অপপ্রচারের বিরূদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন। 

নড়াইল জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে শনিবার (১৬ নভেম্বর) সকালে অনুষ্ঠিত সংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোঃ ফারুক হোসেন ফুয়াদ। লিখিত বক্তব্যে ফুয়াদ বলেন বর্ণী গ্রামের ছবেদ আলী মোল্যা ১৯৭৭ সালে বিছালী বাজার এলাকায় সাবেক ১১৪৮ দাগের ২২ শতক জমি ক্রয় করেন। একই গ্রামের এসএ রেকর্ডিয় মালিক রামগোপাল এর নিকট হতে তিনি এ জমি ক্রয় করেন। এরপর ওই জমির নামজারী করে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করেন। আরএস রেকর্ড পেয়েছেন। কিন্তু বিছালী গ্রামের সেকেন ফারাজী, শরিফুল, আলতাফ ও রজব আলীর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ওই জমিতে। তারা নানা ভাবে ওই জমি নেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এরপর ২০১০ সালে তৎকালিন নায়েব নিশীকান্ত কে দিয়ে ওই জমি অর্পিত সম্পত্তি দাবি করে দেওয়ানী মামলা করায়। মামলাটি চলমান রয়েছে। দীর্ঘকাল ভোগ দখলে থেকে সম্প্রতি ছবেদ আলী ওই জমির কিছু অংশ বিছালী গ্রামের মোঃ জাকারিয়া, ফারুক হোসেন ফুয়াদ, জিয়ারুল মোল্যা, তৌফিক মোল্যা, সবুর মোড়ল, আগদিয়া গ্রামের রিফাত সরদার এবং বর্ণী গ্রামের ওমর আলী মোল্যার নিকট বিক্রি করেন। ক্রয় সূত্রে মালিক হয়ে তারা উক্ত স্থানে শান্তিপূর্ণ ভাবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন। এ সকল জমির মালিকগণ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে ভূমিদস্যু চক্রের অপতৎপরতা এবং এ জমি সংক্রান্ত অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ করেন। তারা জানান ওই কুচক্রী মহল বিভিন্ন ভাবে অন্ধ ছবেদ আলী সহ জমির অন্যান্য মালিকদের বিরূদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত জমির মালিক বর্ণী গ্রামের অন্ধ ছবেদ আলী জানান, তিনি একজন অসহায় গরীব মানুষ। ৩৫ বছর আগে চোখে সমস্যা হয়। অর্থাভাবে চিকিৎসা নিতে না পারায় স্থায়ীভাবে অন্ধ হয়ে গেছেন। একমাত্র ছেলে মানসিক ভারসাম্যহীন। স্ত্রী রিজিয়া বেগম রোগাক্রান্ত হয়ে একটি চোখ একেবারে নষ্ট হয়ে গেছে। অপর চোখে কোন রকম দেখতে পায়। চরম দুরাবস্থায় তাদের জীবন চলছে। অর্থাভাবে বাজারের প্রায় সবটুকু জমি বিক্রি করে দিয়েছেন। ভূমিদস্যু চক্র তার ওই সামান্য জমি গ্রাস করতে তাকে নানা ভাবে নাজেহাল করছে। তিনি সহ অন্যান্য ভূমি মালিকরা এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।