Opu Hasnat

আজ ৯ ডিসেম্বর সোমবার ২০১৯,

কালকিনির বাজারে পেঁয়াজের তীব্র সংকট, প্রতি কেজি ২৫০ টাকা দরে বিক্রি মাদারীপুর

কালকিনির বাজারে পেঁয়াজের তীব্র সংকট, প্রতি কেজি ২৫০ টাকা দরে বিক্রি

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার হাট-বাজারগুলোতে গত তিনদিন ধরে তীব্র পেঁয়াজ সংকট দেখা দিয়েছে। আরো বেশী দাম পাওয়ার আশায় ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে  পেঁয়াজ তাদের গুদাম অথবা বাড়িতে গোপনে মজুদ করে রেখেছেন বলে জানাগেছে। শুক্রবার দুপুরে বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। এ উপজেলায় পেঁয়াজের কেজি বর্তমানে ২৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। কালকিনি, ভুরঘাটা, ফাসিয়াতলা ও কালিগঞ্জসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ চরা দরে পেঁয়াজ বিক্রি হতে দেখা গেছে। এতে করে  ক্রেতাসাধারণ চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দিন -দিন বেড়েই চলেছে পেঁয়াজের দাম।

শুক্রবার সকালে বাজারে পেঁয়াজ কিনতে যান হাসনাহেনা বেগম। এ সময় পেঁয়াজের দাম শুনে ক্ষোভের সঙ্গে তিনি বলেন, কালকিনি পুরানবাজার ও নতুন বাজারসহ প্রায় সব দোকানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আমরা ভুক্তভোগী এত দামে পেঁয়াজ কিনতে বাধ্য হচ্ছি। দোকানদাররা চোখ বন্ধ করে ২৫০ টাকা হাঁকাচ্ছেন প্রতি কেজি। কিন্তু এক টাকাও কম নিচ্ছেনা। গত বৃহস্পতিবার বিক্রি হয়েছে ২২০ টাকা করে কিন্তু শুক্রবার বিক্রি হচ্ছে এক লাঁফে ২৫০ টাকা।  পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে বাকবিতন্ডা করেও কোনো লাভ হচ্ছে না। আবার ব্যবসায়ীরা নিজেরা ইচ্ছে করে বাজারে পেঁয়াজ সংকট সৃষ্টি করে রেখেছেন। এমন হলে আমরা ক্রেতারা এখন কোথায় যাব।

ব্যবসায়ী মাসুদ এসকান বলছেন, বাজারে দেশি পেঁয়াজের সংকট আর আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ বাজারে না আসায় দাম বেড়েই চলেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, আমরা জরুরী ভিত্তিতে বাজারগুলোতে অভিযান পরিচালনা করব। যাতে পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রনে থাকে।