Opu Hasnat

আজ ১০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নকারীদের পদ অপসারণ করা হবে : হানিফ কুষ্টিয়া

দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্নকারীদের পদ অপসারণ করা হবে : হানিফ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম হানিফ বলেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের টানা ১১ বছর ক্ষমতায় থাকার সুযোগ নিয়ে অনেকে দলে যোগদান করেছে, কিন্তু যোগদানের সময় নির্দেশনা ছিলো, যাদের বিরুদ্ধে অনৈতিক অভিযোগ, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, নাশকতা, মাদকের সাথে জড়িত এবং যুদ্ধপরাধীর সাথে যারা জড়িত এই ধরনের ব্যক্তিদের দলে নেওয়া যাবে না। কিন্তু দলের ভিতরে কিছু কিছু জায়গায় এমন ব্যক্তি অনুপ্রবেশ করেছিলো। কেন্দ্রীয় সিধান্ত মোতাবেক এসকল ব্যক্তিরা যাতে কোন কমিটিতে পদ না পেতে পারেন তার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তৃনমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় পর্যায় পর্যন্ত দলের বিভিন্ন জায়গায় যে দু একজন বিতর্কিত ব্যক্তি অনুপ্রবেশ করেছিলো তাদেরকে অপসারন করা হবে। পাশাপাশি আওয়ালীগের যে সকল নেতাকর্মী দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছেন তাদেরকেও নতুন কমিটিগুলোতে দলের পদ অপসারন করা হবে।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজ মাঠে আয়োজিত কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদানের আগে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। 

“সকল দেশ প্রেমিক সংগঠন একসাথে ঐক্যবদ্ধ্য হয়ে এই সরকারের মতন ঘটাতে হবে”  বিএনপি নেতা আমির মাহমুদ খসরু মাহমুদ চৌধুরীর এমন মন্তব্যের পেক্ষিতে হানিফ বলেন, যারা স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান করেছিলো, যারা গনহত্যা চালিয়েছিলো, মুক্তিকামী মানুষকে হত্যা করেছিলো, বাড়িঘর জালিয়ে ছিলো, মা বোনদের সম্ভ্রমহানী করেছিলো সে সমস্ত বিতর্কিত ব্যক্তিরা যদি তাদের কাছে দেশপ্রেমিক হয় তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এদেশের জনগনই যথেষ্ট। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি তাইজাল আলী খানের সভপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতার সঞ্চালনায় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে এসময় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, ত্রান ও সমাজ কল্যান সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, সদস্য এস এম কামাল হোসেন, গোলাম রব্বানী চিনু, কুষ্টিয়া-১ আসনের সংসদ সদস্য আ.কা.ম সরোয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী প্রমুখ।