Opu Hasnat

আজ ১৬ ডিসেম্বর সোমবার ২০১৯,

সালথায় দু’দলের সংঘর্ষে আহত ১০, বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট ফরিদপুর

সালথায় দু’দলের সংঘর্ষে আহত ১০, বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট

ফরিদপুরের সালথায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দুপুরে উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের খারদিয়া গ্রামে দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫ জনকে আটক করেছে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, যুদুনন্দি ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসেন মিয়ার সমর্থকদের সাথে প্রতিপক্ষ জাহিদ মিয়ার সমর্থকদের সাথে গ্রাম্য দলাদলী নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। এরই সুত্রধরে সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে উভয় দলের সমর্থকরা দেশিয় অস্ত্র ঢাল-কাতরা, সড়কি-ভেলা, রামদা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। দফায় দফায় এ সংঘর্ষ বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সংঘর্ষে উভয় দলের ওসমান মোল্যা, মিজান মোল্যা, রানা শেখ, রাসেল, আশরাফ, জাফর সহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের বোয়ালমারী স্বাস্থ্য কেন্দ্র, নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে যুদুনন্দি ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসেন মিয়া বলেন, ফাঁসির দন্ডাদেশ পাওয়া আবুল কালাম আজাদ ওরফে বাচ্চু রাজাকারের মামাতো ভাই জাহিদ মিয়া ও তার সমর্থক টুলুর নির্দেশে আমার সমর্থকদের ১০টি বসতঘর ভাংচুর, ২০টি গরু, ২০টি ছাগল ও লুটপাট করেছে তার লোকজন। আমরা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান তারা রাজাকার পরিবারের লোকজন এটা নিয়ে বাপ দাদাদের সময় থেকে আমাদের শত্রুতা চলছে। সংঘর্ষের সময় আমার ভাটার ভিতর ঢুকে ব্যাপক ভাংচুর চালানো হয়েছে। তিনি বলেন মঙ্গলবার সকালে এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করা হবে সালথা থানায়। 

অপরদিকে জাহিদ মিয়া বলেন, আমি দীর্ঘদিন বাড়িতে থাকি না। আলমগীর মিয়ার সমর্থকদের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে জনগণ ক্ষীপ্ত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। 

সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমান এলাকা শান্ত আছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে তিনি জানান।