Opu Hasnat

আজ ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার ২০১৯,

শ্রমিক লীগের সভাপতি মন্টু, সম্পাদক খসরু রাজনীতি

শ্রমিক লীগের সভাপতি মন্টু, সম্পাদক খসরু

শ্রমিক লীগের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব কে এম আযম খসরু এবং কার্যকরী সহসভাপতি হিসেবে আবুল কালাম আজাদ নির্বাচিত হয়েছেন।

শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে শ্রমিক লীগের ১২তম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এর আগে সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

সম্মেলনের কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতি পদে  সাত জন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ১৩ জনের নাম প্রস্তাব করা হয়।

সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দ সমঝোতা বৈঠকে কোন সিদ্ধান্ত না আসায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং কার্যকরী সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে বলে জানান দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে যাদের নাম এসেছে তাদেরকে নিয়ে আমরা সমঝোতায় বসেছিলাম সমঝোতায় কোন ধরনের সিদ্ধান্ত না আসায় সবাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ওপর দায়িত্ব দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা শ্রমিকলীগের তিনজনের নাম বলেছেন। আশা করি আপনারা এই কমিটি নিয়ে শ্রমিক লীগ সুসংগঠিত করে রাখবেন।’

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের সামনে নতুন সভাপ‌তি মন্টু বলেন,  ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে শ্রমিক লীগের সভাপতির পদে দায়িত্ব দিয়েছেন। আমি সৎ এবং নিষ্ঠার সাথে আমার দায়িত্ব পালন করব।’

নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক আজম খসরু বলেন, ‘সারাদেশে শ্রমিক লীগ সুসংগঠিত করে রাখতে আমরা কাজ করে যাব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বাস অক্ষুন্ন রাখবে।’

এর আগের কমিটিতে মন্টু কার্যকরী সভাপতি, খসরু প্রচার সম্প‌াদক এবং সহ সভাপতি হিসেবে আজাদ দায়িত্ব পালন করেছেন।

প্রায় আট বছর পর শ্র‌মিক লীগের এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সম্মেলন হয় সর্বশেষ ২০১২ সালে। ওই সম্মেলনে সভাপতি হন শুকুর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান সিরাজুল ইসলাম। তিন বছরের কমিটির মেয়াদ থাকলেও চলেছে প্রায় আট বছর।

১৯৬৯ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শ্রমিক লীগ প্রতিষ্ঠা করেন। ২০০৮ সালের গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুসারে শ্রমিক লীগকে ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের মর্যাদা দেয় আওয়ামী লীগ।