Opu Hasnat

আজ ১৬ নভেম্বর শনিবার ২০১৯,

শাওমি নিয়ে এলো ৫০০০এমএএইচ ব্যাটারি সমৃদ্ধ নতুন দু’টি ফোন তথ্য ও প্রযুক্তি

শাওমি নিয়ে এলো ৫০০০এমএএইচ ব্যাটারি সমৃদ্ধ নতুন দু’টি ফোন

গ্লোবাল টেকনোলজি লিডার শাওমি, জনপ্রিয় রেডমি সিরিজের রেডমি ৮ ও রেডমি ৮এ ফোন দুটি নিয়ে আসার ঘোষণা দিল আজ। রেডমি ৮ হচ্ছে রেডমি সিরিজের সর্বশেষ সংস্করণ যাতে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা। রেডমি ৮এ  হচ্ছে রেডমি এ সিরিজের সর্বশেষ সংস্করণ যা ৫১২ জিবি পর্যন্ত এক্সপ্যান্ডেবল মেমরি সার্পোট করে এবং এ সিরিজের বাকি সব ফোনগুলোর দিক থেকে এগিয়ে।

দুটি ফোনেই রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি, যেখানে ব্যবহারকারী এক বার চার্জ দিয়ে দীর্ঘ সময় ব্যবহার করতে পারে। চিপসেট হিসাবে ফোন দুটিতে রয়েছে শক্তিশালী কোয়ালকম ® স্ন্যাপড্রাগন ™ ৪৩৯ অক্টা-কোর প্রসেসর। প্রথমবারের মতো শাওমি এই সেগমেন্টের স্মাটফোনে ইউএসবি টাইপ-সি সমৃদ্ধ ১৮ওয়াটের দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে। পণ্যের মানের উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়ার ফলে শাওমি দুটি স্মাটফোনেই ব্যবহার করেছে কনিং ® গরিলা ® গ্লাস ৫ ও পিটুআই ন্যানো কোটিং প্রযুক্তি, যা স্মার্টফোনকে স্প্ল্যাশ প্রতিরোধী ও অধিক সুরক্ষা নিশ্চিত করে।

রেডমি ৮এ
১৯:৯ অ্যাস্পেক্ট রেশিও সম্পন্ন ৬.২২ ইঞ্চির (১৫.৮ সেমি) ডট নচ এইচডি প্লাস ডিসপ্লে গ্রাহককে একটি অসাধারণ অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে। অরা ওয়েভ গ্রিপ এর ডিজাইন সমৃদ্ধ ফাইন টেক্সচার নকশা থাকার কারণে আঙ্গুলের ছাপ কমানোর পাশাপাশি অসাধারণ হ্যান্ডফিল দিয়ে থাকে। রেডমি ৮ এ তে রয়েছে (২ + ১) ডুয়াল সিম স্লট এর পাশাপাশি ডেডিকেটেড এক্সপ্যান্ডেবল মেমরি কার্ড ব্যাবহারের সুবিধা যার ফলে স্টোরেজ ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত বৃদ্ধি করার সুযোগ থাকছে। এই ফোন ব্যবহারকারীরা ইয়ারফোন সংযুক্ত না করেই এফএম রেডিও চালানোর মতো জনপ্রিয় সুবিধাটি পাবেন। রেডমি ৮এ ফোনটিতে রয়েছে রিয়ার ক্যামেরা হিসবে একটি ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর এবং ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। এই ফোনটির সামনে ও পিছনের উভয় ক্যামেরা দিয়েই এআই পোর্ট্রেট মোডে  ছবি নেওয়া যাবে। 

রেডমি ৮
তরুণদের প্রতিদিনের মাল্টি-টাস্কিং এ অসাধারণ অভিজ্ঞতা প্রদানের লক্ষ্যে রেডমি ৮ রয়েছে ৪ গিগাবাইট পর্যন্ত র‌্যাম এবং ৬৪ গিগাবাইট  পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ। ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ গ্রাহককে মেমরি শেষ হওয়ার ভয় থেকে রক্ষা করবে এবং ৪ জিবি র‌্যাম  র্দুদান্ত  মাল্টি-টাস্কিংয়ের অভিজ্ঞতা দিবে, যা এই সেগমেন্টে পূর্বে কেউ আশা করেনি।

রেডমি ৮ ফোনটিতে রয়েছে এআই ডুয়েল ক্যামেরা, যার একটি ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর এবং অন্যটি ২ মেগাপিক্সেলের ডেডিকেটেড ডেপথ সেন্সর। ৩৩ টি বিভিন্ন ক্যাটাগরি পর্যন্ত এআই দৃশ্য সনাক্তকরণের সুবিধা থাকার কারনে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে ছবি তোলা অত্যন্ত সহজ হয়েছে। এর সামনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা যাতে এআই পোর্ট্রেট মোডে দৃষ্টিনন্দন পোর্ট্রেট সেলফি তোলা যায়।

অরা মিরর ফিনিসিং রেডমি ৮ কে করেছে আরো বেশি আকর্ষনীয়। এই ফোনে রয়েছে ৬.২ ইঞ্চির (১৫.৮সে.মি) এইচডি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ফিংগারপিন্ট সেন্সরের পাশাপাশি থাকছে  এআই ফেস আনলক। এছাড়াও ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করতে থাকছে ওয়্যারলেস এফএম রেডিও এবং ডুয়েল সিমের দুটোতেই ফোর-জি সমর্থন। রেডমি ৮ ডুয়েল সিমের পাশাপাশি একটি ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি র্কাড ¯øট (২+১ ¯øট) থাকছে, যাতে স্টোরেজ সুবিধাকে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

শাওমি বাংলাদেশ-এর কান্ট্রি জেনারেল ম্যানেজার জিয়াউদ্দীন চৌধুরী বলেন, “ আমাদের সম্পূর্ণ নতুন উদ্ভাবন রেডমি ৮ এবং রেডমি ৮এ বাংলাদেশে নিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই রোমাঞ্চিত। ব্র্যান্ড হিসাবে আমরা আমাদের গ্রাহকদের জন্য অনেস্ট প্রাইসে সেরা উদ্ভাবনী প্রযুক্তি নিয়ে আসায় বিশ্বাস করি। দীর্ঘস্থায়ী  ৫০০০এমএএইচ ব্যাটারি এবং ইউএসবি টাইপ-সি তে ১৮ওয়াট  ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টের মতো ফিচারগুলো স্মার্টফোন দুটিকে নতুন মাত্রা দিয়েছে। সেরা মানের পণ্য এবং অসাধারণ সব স্পেসিফিকেশন বাংলাদেশের মি ফ্যানদের জন্য অসাধারণ অভিজ্ঞতা নিয়ে আসতে সক্ষম হবে বলে আমরা আশাবাদী”।

দাম ও প্রাপ্যতা
ক্স রেডমি ৮এ ফোনটির ২জিবি+৩২ জিবি ভার্সনটি ১০,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাবে সানসেট রেড, ওসেন ব্লু এবং মিডনাইট ব্ল্যাক এই তিনটি অসাধারণ রঙে। 
ক্স রেডমি ৮ ফোনটি পাওয়া যাবে অনিক্স ব্লেক, রুবি রেড, সেপায়ার ব্লু এই তিনটি রঙে। এর ৩জিবি+৩২ জিবি ভার্সনটি পাওয়া যাবে ১৩,৯৯৯ টাকা মূল্যে এবং ৪জিবি+৬৪ জিবি ভার্সনটির দাম পড়বে ১৪,৯৯৯ টাকা । 
ক্স ৪ নভেম্বর থেকে দুটি ফোনই সকল অনুমোদিত মি স্টোর, পার্টনার স্টোর এবং রিটেইল স্টোরে পাওয়া যাবে। 

শাওমি কর্পোরেশন সম্পর্কে-
শাওমি কর্পোরেশন ২০১০ সালের এপ্রিল মাসে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং ২০১৫ সালের ৯ জুলাই (১৮১০.এইচকে) হংকং স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান বোর্ডে তালিকাভুক্ত হয়েছিল। শাওমি একটি আন্তর্জাতিক কোম্পানি, যেটির স্মার্টফোন ও স্মার্ট হার্ডওয়্যার একটি আইওটি প্ল্যাটফর্মের সাথে সংযুক্ত রয়েছে। গ্রাহকদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এবং তাদের হৃদয়ে ‘কুলেস্ট কোম্পানি’ হওয়ার সাথে, শাওমি ক্রমাগত উদ্ভাবন নিয়ে আসতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, যা গুণগত মান এবং দক্ষতার ওপর গুরুত্ব দেয়। কোম্পানিটি নিরবচ্ছিন্নভাবে বিশ্বের সেরা সকল উদ্ভাবনী প্রযুক্তির মাধ্যমে উন্নত জীবন উপভোগ করার জন্য সাশ্রয়ী মূল্যে চমৎকার সব পণ্য তৈরি করে থাকে। শাওমি বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম স্মার্টফোনের ব্র্যান্ড এবং বিশ্বের বৃহত্তম ভোক্তা আইওটি প্ল্যাটফর্ম প্রতিষ্ঠা করেছে। এই প্ল্যাটফর্মের সাথে সংযুক্ত আছে ১৭১ মিলিয়নেরও বেশি স্মার্ট ডিভাইস (স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপ বাদে)। বর্তমানে, শাওমি পণ্যসমূহ বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশে ও অঞ্চলে ব্যবহৃত হচ্ছে এবং অনেক বাজারে এটি শীর্ষ স্থানে রয়েছে। ২০১৯ সালের জুলাই মাসে, প্রতিষ্ঠানটি প্রথমবারের মতো ফরচুন গ্লোবাল ৫০০ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে, র‌্যাংকিংয়ে সকলের মধ্যে ৪৬৮তম এবং ইন্টারনেট সার্ভিসেস অ্যান্ড রিটেইলিং ক্যাটাগরিতে ৭ম স্থান অর্জন করেছে।