Opu Hasnat

আজ ২২ নভেম্বর শুক্রবার ২০১৯,

চমেক হাসপাতালের সিসিইউ-২ উদ্বোধন স্বাস্থ্যসেবাচট্টগ্রাম

চমেক হাসপাতালের সিসিইউ-২ উদ্বোধন

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল রোগীকল্যাণ সমিতির উদ্যোগে ও তাহের ব্রাদার্স লি. এর আর্থিক সহায়তায় চমেক হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগে ১৫ শয্যা বিশিষ্ট করোনারি কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ)-২ স্থাপন করা হয়েছে। হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগে সিসিইউ-২ এর উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এ উপলক্ষে হাসপাতালের সভাকক্ষে রোগীকল্যাণ সমিতির সভাপতি ও হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বি এম এ, চট্টগ্রামের সভাপতি প্রফেসর ডাঃ মুজিবুল হক খান, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদ, হৃদরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ প্রবীর কুমার দাশ, সমাজসেবা অধিদফতর চট্টগ্রামের উপপরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম, তাহের ব্রাদার্স লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব আবুল বশর। রোগীকল্যাণ সমিতির তথ্য, প্রকাশনা ও প্রচার সম্পাদক হাফেজ মোহাম্মদ আমান উল্যাহর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন হাসপাতাল সমাজসেবা অফিসার ও রোগীকল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ সাহা। অন্যান্যের মধ্যে ডাঃ তৈয়ব সিকদার, মাহামুদুল হাসান, মুজিবুল হক ছিদ্দিকী এবং মুনতাসির মামুন বক্তব্য রাখেন। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, চট্টগ্রামে হৃদরোগীর সংখ্যা দেশের অন্যান্য স্থানের তুলনায় বেশী হলেও হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য এতদ্ অঞ্চলের মানুষের একমাত্র ভরসার স্থল চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগ। হৃদরোগ বিভাগ এতদিন চলত মাত্র ১৬ বেড এর সিসিইউ দিয়ে। যা দিয়ে এত বিপুল সংখ্যক হৃদরোগীকে চিকিৎসা দিতে গিয়ে হিমসিম খেতেন চমেক চিকিৎসকগণ। এই বিষয়ে প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনায় এনে রোগীকল্যাণ সমিতি আরো ১৫ টি বেড সম্বলিত আরো একটি সিসিইউ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে তা বাস্তবায়ন করেছে যা প্রশংসার দাবীদার। রোগীকল্যাণ সমিতি তার সীমিত সামর্থ্যরে মধ্যে স্থানীয় বিবেকবান মানুষের সহায়তায় হাসপাতালের দরিদ্র রোগীদের সহায়তার পাশাপাশি হাসপাতালে বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিদ্যমান অসুবিধাগুলোও দূর করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। রোগীকল্যাণ সমিতির কার্যক্রমের সাথে তাহের ব্রাদার্সের মতো সামর্থবান সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান যদি সম্পৃক্ত হন তাহলে বিনা চিকিৎসায় বা অর্থাভাবে আর কোন রোগী মারা যাবেন না। তাই রোগীকল্যাণ সমিতির সকল কার্যক্রমে আমাদের সকলের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়া প্রয়োজন। হৃদরোগ বিভাগে সিসিইউ-২ স্থাপনে সার্বিক সহায়তার জন্য তাহের ব্রাদার্স ও রোগীকল্যাণ সমিতিকে তিনি ধন্যবাদ জানান। 

বিএমএ সভাপতি প্রফেসর ডাঃ মুজিবুল হক খান বলেন, আমি নিজেও রোগীকল্যাণ সমিতির আজীবন সদস্য। রোগীকল্যাণ সমিতি বিবেকবান ও সামর্থ্যবান ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এর সহযোগিতা নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তিকৃত অসহায় রোগীদের সহায়তা করে আসছে। আমার জানামতে এ পর্যন্ত প্রায় তিন লক্ষ রোগীকে সহায়তা করেছে রোগীকল্যাণ সমিতি। আজ থেকে শয্যার দিক হতে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট এর পর সম্ভববত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউ র অবস্থান। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর নাসির উদ্দিন মাহমুদ তাঁর বক্তব্যে রোগীকল্যাণ সমিতি ও তাহের ব্রাদার্স লি.কে ধন্যবাদ জানান। অধ্যাপক প্রবীর দাশ বলেন এতদিন মাত্র ১৬ টি সিসিইউ শয্যা দিয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত এত বিপুল সংখ্যক রোগীকে চিকিৎসা দিতে গিয়ে আমাদের চিকিৎসক এবং সিস্টারগণ হিমসিম খেতেন। রোগীকল্যাণ সমিতি ও তাহের ব্রাদার্স ১৫ টি অতিরিক্ত পূর্ণাঙ্গ সিসিইউ বেড সংযোজন করায় এখন থেকে প্রায় দ্বিগুন সংখ্যক রোগীকে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হবে। তিনি বলেন আজ থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হলো দ্বিতীয় বৃহত্তম সিসিইউ শয্যা সম্বলিত হাসপাতাল। সমাজসেবা অধিদফতর চট্টগ্রামের উপপরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম বলেন সমাজসেবা অধিদফতরের ৫৪ টি কার্যক্রমের মধ্যে হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যক্রম একটি অন্যতম ও আদি কার্যক্রম। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রোগীকল্যাণ সমিতি বর্তমানে বাংলাদেশের একটি অন্যতম সমিতি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে। তাহের ব্রদার্স লিমিেিটড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব আবুল বাশার রোগীকল্যাণ সমিতির সকল ভাল কাজের সাথে তাহের ব্রাদার্স সম্পৃক্ত থাকবে বলে ঘোষনা দেন। সভাপতির বক্তব্যে ব্রিগেডিয়ার মোহসেন উদ্দিন আহমদ রোগীকল্যাণ সমিতির সাথে সকলকে সম্পৃক্ত হয়ে দরিদ্র ও অসহায় রোগীদের সাহায্যার্থে এগিয়ে আসার জন্য সমাজের সকল বিত্তবান মানুষের প্রতি আহ্বান জানান। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি রোগীকল্যাণ সমিতির ওয়েবসাইট www.rksbd.com উদ্বোধন করেন এবং অনুষ্ঠানে সরবরাহকৃত সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন মৈত্রি শিল্প হতে উৎপাদিত মুক্তা পানি ব্যবহার করে প্রতিবন্ধী মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সকলের কাছে পৌঁছে দেয়ার অনুরোধ জানান।