Opu Hasnat

আজ ১৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা দোস্ত মোহাম্মদ আর নেই মুক্তিবার্তাখাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা দোস্ত মোহাম্মদ আর নেই

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী আর নেই (ইন্নালি­লাহি রাজেউন)। শুক্রবার ভোর রাতে খাগড়াছড়ি সদরের মধুপুর এলাকার নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯বছর। দীর্ঘদিন তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে চার ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে অন্যতম সংগঠকের দায়িত্ব পালন করেন আলহাজ্ব দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী। শুক্রবার বাদ আসর খাগড়াছড়ি কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নামাজে জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনের কথা রয়েছে।

তাঁর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শরনার্থী পুনর্বাসন বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান ও ২৯৮নং আসনে সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, ৩০৯ মহিলা আসনে-৯ সংসদ বাসন্তি চাকমা, সাবেক সংসদ সদস্য যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, খাগড়াছড়ি পৌরসভার মেয়র মো: রফিকুল আলম, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি খাগড়াছড়ি ইউনিটের ভাইস-চেয়ারম্যান এডভোকেট জসিম উদ্দিন মজুমদার, খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা, খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়–য়া, সম্পাদক মো: আবু তাহের, খাগড়াছড়ি রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি চাইথোয়াই মারমা, খারিই সম্পাদক ও দৈনিক সবুজ পাতার দেশ সম্পাদক মো: জুলহাজ উদ্দিন, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মো: নুরুল আজম, সম্পাদক কানন আচার্য, জাতীয় পার্টির খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার খোরশেদ আলম প্রমুখসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন শোক প্রকাশ করেছে।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী স্ত্রী, চার ছেলে ও  দুই মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন, গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। ১৯৭১সালের ৭ই ডিসেম্বর থেকে তিনি খাগড়াছড়ির তৎকালীন মহাকুমা আওয়ামী লীগের সভাপতি হন। টানা ২২বছর তিনি এ পদে দ্বায়িত্ব পালন করেন। একই সঙ্গে তিনি খাগড়াছড়ির মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরীর ছোট ছেলে মো: আফতাফ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বাদ আসর খাগড়াছড়ি কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে। শুক্রবার (১১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৩টার দিকে তিনি জেলা শহরের এপিবিএন এলাকার নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর