Opu Hasnat

আজ ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতিসহ কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে ৮ সদস্যের পদত্যাগ মিডিয়াঝিনাইদহ

ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতিসহ কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে ৮ সদস্যের পদত্যাগ

ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতিসহ ৮ সদস্য কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে পদত্যাগ করেছেন। বুধবার রাত ১০টার দিকে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে গিয়ে তারা পদত্যাগপত্র জমা দেন। ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের গঠনতন্ত্র পরিপন্থি কর্মকান্ড, জোরপুর্বক এজেন্ডা বিহীন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন, তুচ্ছ অজুহাতে প্রকৃত সাংবাদিকদের বাদ দেওয়া ও ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখার জন্য অসাংবাদিকদের ঢালাও ভাবে সদস্য বানানোর প্রতিবাদে ৮ সাংবাদিক পদত্যাগ করেন বলে পদত্যাগ পত্রে উল্লেখ করেন। 

কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে পদত্যাগকারী সাংবাদিকদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক সভাপতি ও কালেরকন্ঠের জেলা প্রতিনিধি এম সাইফুল মাবুদ, একাধিকবার নির্বাচিত সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও এটিএন বাংলা এবং এটিএন নিউজের নিজাম জোয়ারদার বাবলু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও প্রথম আলোর স্টাফ রিপোর্টার আজাদ রহমান, দৈনিক নবচিত্রের বার্তা প্রধান ও দৈনিক দিনকালের জেলা প্রতিনিধি আসিফ ইকবাল কাজল, দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার আমিনুল ইসলাম লিটন, দেশরুপান্তর ও বাংলানিউজের জেলা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রবি, বাংলাভিশন টেলিভিশনের আসিফ ইকবাল মাখন ও ডেইলি ইনডিপেনডেন্ট এবং যমুনা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি আহম্মেদ নাসিম আনসারী। পদত্যাগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, ঝিনাইদহের গনমানুষের আস্থার প্রতিক হচ্ছে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব। সরকারের উন্নয়ন সহযোগীর পাশাপাশি গঠনমুলক সমালোচনা এবং সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, মাদক ও সমাজের দুষ্ট মানুষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের সোচ্চার হয়ে পেশাদারিত্ব অর্জন ও সাংবাদিকতায় সাহসী ভুমিকা পালন করে আসছি। কিন্তু বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের গোয়ার্তুমি ও সেচ্ছাচারিতার কারণে আমাদের অর্জিত সেই ঐতিহ্য হারাতে বসেছি। পদত্যাগপত্র জমাদানকারীদের অভিমত সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের এই পদত্যাগের ফলে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটি কার্যত ভেঙ্গে গেল। এই কমিটির আর কোন অস্তিত্ব থাকলো না।  

এই বিভাগের অন্যান্য খবর