Opu Hasnat

আজ ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

কালকিনিতে হামলা-মামলার শিকার হয়ে বৃদ্ধের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ মাদারীপুর

কালকিনিতে হামলা-মামলার শিকার হয়ে বৃদ্ধের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ

মাদারীপুর কালকিনিতে নূর মোহাম্মদ ভুইয়া নামের এক অবসরপ্রাপ্ত চতুর্থ শ্রেনীর অসহায় সরকারি কর্মচারীর জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর প্রতিবাদ করায় তার উপর বিভিন্ন সময় দফায়-দফায় হামলা-মামলা চালিয়ে আসছে প্রতিপক্ষ। এ ঘটনার সঠিক বিচারের দাবিতে ওই অসহায় বৃদ্ধ নূর মোহাম্মদ ভুইয়া নিরুপায় হয়ে বৃহস্পতিবার জেলা পরিষদ ও পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন। সে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসের অবসর প্রাপ্ত চতূর্থ শ্রেনীর একজন কর্মচারী।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ ও এলাকা সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার সাহেবরামপুর এলাকার দক্ষিন সাহেবরামপুর গ্রামের মজিদ ভুইয়ার ছেলে নূর মোহাম্মদ ভুইয়ার সাহেবরামপুর মৌজার ১৬৬নং খতিয়ানের ৮৮৭নং সহ বেশ কয়েকটি দাগে প্রায় এক একর পৈত্রিক সম্পত্তি রয়েছে। কিন্তু নূর মোহাম্মদ ভুইয়া নীরিহ ও বৃদ্ধ হওয়ার সুয়োগে কোন কাগজপত্র ছাড়াই তার ওই জমি থেকে পেশি শক্তিবলে একই এলাকার আলী চৌকিদার, মুজ্জাম্মেল চৌকিদার, কালাম চৌকিদার ও নাঈম চৌকিদার মিলে ১ শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় নূর মোহাম্মদ ভুইয়াকে বিভিন্ন সময় মারধর এবং একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগে জানাযায়। এদিকে হামলা- মামলা ও জমি দখলের চেষ্টার ঘটনার অভিযোগ এনে নূর মোহাম্মদ ভুইয়া ন্যায় বিচারের দাবিতে মাদারীপুর জেলা পরিষদ, জেলা পুলিশ সুপার, মাদারীপুর র‌্যাব-৮, কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ভুক্তভোগী নূর মোহাম্মদ ভুইয়া বলেন, আমার এলাকায় কোন শক্তি নেই, লোকজন নেই তাই আমাকে দূর্বল পেয়ে আমার জমি দখলের চেষ্টা করছে আলী চৌকিদার, মুজ্জাম্মেল চৌকিদার, কালাম চৌকিদার ও নাঈম চৌকিদার। আমি তাদের বাধা দিলে আমাকে মারধর করে এবং মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। এবং কি পুনরায় হামলার আতঙ্কে আমি পালিয়ে বেড়াচ্ছি। আমি এই হয়রানী থেকে মুক্তি চাই। তবে অভিযুক্ত  আলী চৌকিদার এ ঘটনা অস্বীকার করেন।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম বলেন, এ বিষয় আমরা এখন পর্যন্ত কাগজ হাতে পাইনি। পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

এ ব্যাপারে  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।