Opu Hasnat

আজ ১৬ অক্টোবর বুধবার ২০১৯,

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন : বাংলাদেশের ঘাড়েই দায় চাপাতে চাইছে মিয়ানমার আন্তর্জাতিক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন : বাংলাদেশের ঘাড়েই দায় চাপাতে চাইছে মিয়ানমার

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের দায় বাংলাদেশের ঘাড়েই চাপাতে চাইছে মিয়ানমার। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের পঞ্চম দিনে নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সময় শনিবার রাতে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর কার্যালয়ের মন্ত্রী কোয়ে তিন্ত সোয়ে বাংলাদেশকে ‘বিশ্বস্ততার সঙ্গে’ মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পাদিত দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন।

একই সঙ্গে তিনি রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে ‘সেইফ জোন’ বা নিরাপদ অঞ্চল গঠনের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন। দুই বছর আগে সম্পাদিত দ্বিপক্ষীয় প্রত্যাবাসন চুক্তির বাইরে গিয়ে মিয়ানমারের কিছু করার নেই বলেও সাফ জানিয়েছেন সোয়ে। তার দাবি এটি ‘বাস্তবসম্মত’ নয়।

২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনে সেনা অভিযানের পর প্রায় ৯ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে।

মিয়ানমারের মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের এখন অগ্রাধিকার হচ্ছে প্রত্যাবাসন এবং তালিকাভুক্তদের প্রত্যাবাসনের জন্য আরও উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টি করা।’ এক্ষেত্রে অন্যান্যদেরসহ বাংলাদেশ, জাতিসংঘ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলির জোট আসিয়ানের মধ্যে সহযোগিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে জানান তিনি।

সোয়ে বাংলাদেশকে ‘বিশ্বস্ততার সঙ্গে’ দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘বাস্তুচ্যুত ব্যক্তিদের সমস্যা সমাধানের এটাই একমাত্র কার্যকর উপায়।’