Opu Hasnat

আজ ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

কালকিনিতে জমি দখল করে প্রভাবশালীর ঘর নির্মান, আদালতের নির্দেশে দখলমুক্ত মাদারীপুর

কালকিনিতে জমি দখল করে প্রভাবশালীর ঘর নির্মান, আদালতের নির্দেশে দখলমুক্ত

মাদারীপুরের কালকিনিতে বাড়িতে না থাকার সুযোগে আপন তিন ভাইয়ের বাড়ির ৩৯ শতাংশ জমি দখল করে দুইটি টিনসেটের ঘর নির্মান করেন এক প্রভাবশালী। শনিবার দুপুরে ঢোল পিটিয়ে ও লাল পতাকে টানিয়ে স্থানীয় মান্যগন্য লোকজনের উপস্থিতিতে ওই জমি দখলমুক্ত করেন জেলা জর্জকোর্ট। এতে করে ভুক্তভোগী পরিবারের মাঝে স্বস্তি নেমে আসে।

ভুক্তভোগী ও এলাকা সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার রমজারপুর এলাকার চরকাতলা গ্রামের সেরজাল বেপারীর ছেলে মোঃ হুমায়ুন কবির, মোঃ বিল্লাল হোসেন ও মোঃ রকিব মিয়ার ক্রয়কৃত ১৪৩নং মৌজার ৩৪১নং দাগের ৩৯ শতাংশ বাড়ির জমি জোরপূর্বক দখল করে একেই গ্রামের মোঃ হোসেন বেপারী, হানিফ বেপারী, আলমগীর বেপারী, কাশেম বেপারী ও জাহাঙ্গির বেপারীর মিলে ওই জমিতে দুইটি টিনসেটের ঘড় নির্মান করেন এবং মেহগনিসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে নিয়ে যান। পরে মোঃ বিল্লাল হোসেন ও তার দুই ভাই মিলে বাদী হয়ে মাদারীপুর জর্জকোর্টে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় রায় পান বাদী মোঃ বিল্লাল হোসেন ও তার দুই ভাই। কোর্ট রায় দেয়ার পর ওই জমি দখলমুক্ত করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। এ নির্দেশ মোতাবেক জর্জকোর্টের নাজির মিজানুর রহমান সরেজিমেন এসে ওই টিনসেটের ঘর ভেঙ্গে দিয়ে এবং জমিতে লাল পতাকা টানিয়ে ঢোল পিটিয়ে জমি দখলমুক্ত ঘোষনা করেন।

মামলার বাদী মোঃ বিল্লাল হোসেন বলেন, আদালতকে আমরা সম্মান জানাই, এ সঠিক রায়ে আমরা জমি ফেরত পেয়েছি।

বিবাদী হুমায়ুন কবির বলেন, আমরা আইনকে শ্রদ্ধা করে এ রায়কে মেনে নিয়েছি।

জেলা জর্জকোর্টের নাজির মিজানুর রহমান বলেন, কোর্টের নির্দেশ মোতাবেক স্থানয়ি লোকজনের সহযোগীতায় আমরা এসে জমি দখলমুক্ত করেছি।

এ ব্যাপারে রমজানপুর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাক হোসেন বলেন, সবার উপরে আইন। কোর্ট আদেশ দিয়েছেন জমি দখলমুক্ত হয়েছে। আমরা এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলাম।