Opu Hasnat

আজ ১৬ অক্টোবর বুধবার ২০১৯,

কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড

কুষ্টিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যোক্তের প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর ভাইকে উপর্যুপরি ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যার দায়ে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী জনাকীর্ণ আদালতে আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন। 

মৃত্যু দন্ডপ্রাপ্ত হলেন- কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাতিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের খবির উদ্দিন সেখের ছেলে উজ্জল ইসলাম ওরফে উজ্জল শেখ (২৮)।

আদালত সূত্রে জানায়, ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারী ভালোবাসা দিবসে সন্ধা সাড়ে ৬টায় প্রেম প্রত্যাশী সহপাঠী কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের ছাত্র আসামী উজ্জল সহপাঠী ছাত্রীর কাছ থেকে একাধিকবার প্রত্যাখাত হয়েও ওই ছাত্রীর বাড়ি মিরপুর উপজেলার বালিয়াসিসা গ্রামে গিয়ে হাজির হন। সেখানে ছাত্রীর ভাই আব্দুল্লাহ বাড়ির ভিতরে ঢুকতে বাধা দেয়। এসময় আসামী উজ্জল কাছে থাকা ধারালো চাকু দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে আব্দুল্লাহকে। তার চিৎকার শুনে মা সুফিয়া খাতুন ও চাচাত ভাই শাজাহান আলী ঠেকাতে গেলে তাদেরও ধারালো চাকু দিয়ে উপর্যুপরি আঘাতে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যাওয়ার সময় আশপাশের লোক জড়ো হয়ে উজ্জলকে আকট করে পুলিশে সৌপর্দ করে। এঘটনায় গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহকে মৃত ঘোষনা করেন। 

এ ঘটনায় ১৫ ফেব্রুয়ারী মিরপুর থানায় নিহতের পিতা আসলাম  শেখের করা হত্যা মামলায় একমাত্র আসামী করা হয় উজ্জলকে। মামলাটি তদন্ত শেষে আসামী উজ্জলের বিরুদ্ধে দ:বি: ৪৪৭/৩২৪/৩০৭/৩০২ ধারায় অভিযোগ এনে ২০১৮ সালের ৩০জুন আদালতে চার্যশীট দাখিল করে পুলিশ। 

কুষ্টিয়া জজ কোর্টের সরকারী কৌশুলী এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, সহপাঠী কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যোক্তের জেরে ছাত্রীর ভাইকে হত্যা মামলায় আসামী উজ্জলের বিরুদ্ধে সরাসরি হত্যাকান্ডে জড়িত অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমানিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত তাকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। মামলটির আসামী পক্ষের কৌশুলী ছিলেন এ্যাড. তানজিলুর রহমান এনাম।