Opu Hasnat

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

রাজবাড়ীতে ডেঙ্গুর লার্ভা আছে কি না ? জানে না স্বাস্থ্য বিভাগ স্বাস্থ্যসেবারাজবাড়ী

রাজবাড়ীতে ডেঙ্গুর লার্ভা আছে কি না ? জানে না স্বাস্থ্য বিভাগ

রাজবাড়ীতে ডেঙ্গুর লার্ভা নির্নয়ের স্বাস্থ্য বিভাগের রয়েছে উদাশীনতা। জেলায় এ পর্যন্ত প্রায় চারশত ডেঙ্গু রোগী চিহ্নিত হয়েছে, চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারাগেছে দুইজন। জেলার কোথাও ডেঙ্গু লার্ভা আছে কিনা? জানা নেই স্বাস্থ্য বিভাগের। এমনকি কোন জরিপ হয়েছে কিনা তাও জানেন না সিভিল সার্জন। আর জেলা প্রশাসক বলছেন ডেঙ্গু প্রতিরোধে সকলের মাঝে সচেতনতা তৈরি করতে হবে। 

রাজবাড়ী শহরের প্রানকেন্দ্রে  পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায় অবস্থিত রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজসহ বহু স্থাপনা ও বসতবাড়ি। গুরুত্বপূর্ণ এই এলাকায় যত্রতত্র বিভিন্ন পাত্রে জমে আছে পানি। পৌরবাসির অভিযোগ ডেঙ্গু প্রতিরোধে তেমন কোন কার্যক্রম নেই কর্তৃপক্ষের। পৌরবাসি জানান, পৌরসভার ড্রেনেই বাসা বেধেছে মশা মাছি। 

রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী জানান, ডেঙ্গু নির্মূলে চলছে ক্রাশ কর্মসুচি। পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সকল ড্রেন পরিষ্কার করা হবে। সেই সাথে ছিটানো হবে এডিসের লার্ভা ধ্বংসকারী  ওষুধ।

রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম  জানান, ডেঙ্গুর আক্রমন থেকে রাজবাড়ীবাসিকে বাচাতে সচেতনতা সবচেয়ে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সেই সাথে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ড পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হবে। সেই লক্ষে মাঠে কাজ করছে পরিচ্ছন্নতা কর্মী।

আর রাজবাড়ীর ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ এস,এম এম হান্নান বলছেন, এ পর্যন্ত জেলায় ৩৬৭ জন ডেঙ্গু রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। তবে জেলায় কোন এডিসের লার্ভা আছে কিনা ? এবং লার্ভা নির্নয়ে কোন কার্যক্রম হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। যে কারনে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। 

জুলাই থেকে এ পর্যন্ত রাজবাড়ীতে ৩৬৭ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে রাজবাড়ী থেকে ফরিদপুরে স্থানান্তর করার পর মারা গেছে ২ জন । এখনও প্রতিদিন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে নতুন নতুন রোগী।