Opu Hasnat

আজ ১৮ সেপ্টেম্বর বুধবার ২০১৯,

ব্রেকিং নিউজ

ছাতকে রাব্বী হত্যা মামলার ৬ আসামী জেল হাজতে সুনামগঞ্জ

ছাতকে রাব্বী হত্যা মামলার ৬ আসামী জেল হাজতে

সুনামগঞ্জের ছাতকের চাঞ্চলকর রাব্বী হত্যা মামলার ৬ আসামীকে জেল হাজতে প্রেরন করেছেন সুনামগঞ্জ জেলা বিজ্ঞ আদালত। মামলা ও আদালত সুত্রে জানাযায়, সোমবার সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে  হাইকোর্ট বিভাগ ঢাকা’র ফৌঃ বিবিধ ২০১৯/৪৭৯৬১নং মোকাদ্দমায় মহামান্য হাইকোট এর বিগত ২০/৮/২০১৯ইং তারিখের মহামন্য বিচারক বৃন্দের আদেশ মোতাবেক ছাতক থানার ২০-২৬/০৭/২০১৯ নং রাব্বী হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত আসামী  ছাতক পৌর সভার কাউন্সিলার লিয়াকত আলী এবং আমির আলী, আতিকুর রহমান সোহাগ, মোক্তার আলী, অপু মিয়া ও তাজিম হোসাইন সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে আত্মসমর্পন করেন। এসময় সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে মামলার শুনানিকালে এজাহার কারিনী রুপিয়া বেগম আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে বিজ্ঞ আদালতের বিচারককে আকুতি জানান যে আদালতে আসামীগং হাজির হওয়ার আগে মামলার বাদীনিকে হুমকি প্রদান করেন। 

বাদীনি আদালতকে জানান,  টাকা দিয়া নাকি আদালত  কিনিয়াছেন আসামী পক্ষরা। বাদীনির কথা শুনে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক আসামী পক্ষের আইনজীবীদের প্রশ্নকালে এসময়  আসামী পক্ষের আইনজীবীরা আদালতের ঢুকে দাড়ানো আসামীদের সাথে জিজ্ঞাসকালে উল্লেখিত আসামীগন হুমকির বিষয়টি অস্বিকার করেন। শুনানী শেষে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক মহামান্য হাইকোর্ট এর ঐ ৬জনের জামিন বাতিল করে তাদের সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল হাজতে প্রেরন করেন। 

জানাযায় মহামান্য হাইকোর্ট থেকে ৬জন গত ২০ আগষ্ট জামিন নিয়ে নিম্ন আদালতে ৯ সেপ্টেম্বর হাজির হন। 

উল্লেখ্য, গত ২৩ জুলাই বিকালে ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরী ৪নং এলাকার বাজারস্থ শফিক মিয়ার চাউলের দোকানের সামনে ছাতক উপজেলার নোয়ারাই গ্রামের বাসিন্দা আলমগীর হোসেন এর ছেলে মেহেদী হাসান রাব্বী (২২)একটি চেয়ারে বসে চা খাওয়া অবস্থায় তার উপর ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরী এলাকার মামলার ১নং আসামী তারেক মিয়াগং দাড়ালো অস্ত্র দিয়ে রাব্বীকে কুপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে । আহত অবস্থা তাকে সিলেট এ এম.জি.ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে সেখানেই সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারাযায়। এ ঘটনায় নিহত রাব্বীর মা রুপিয়া বেগম বাদী হয়ে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন যার ছাতক থানায় মামলা নং-২০.২৬/৭/২০১৯ইং।