Opu Hasnat

আজ ১৫ নভেম্বর শুক্রবার ২০১৯,

চট্টগ্রামে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বৃক্ষরোপণের উদ্বোধন

দেশ ও পরিবেশকে বাঁচাতে বৃক্ষরোপণের কোন বিকল্প নেই চট্টগ্রাম

দেশ ও পরিবেশকে বাঁচাতে বৃক্ষরোপণের কোন বিকল্প নেই

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপরিচালক মোঃ সামছুল আলম বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনসহ বিভিন্ন  কারণে  আমাদের দেশ চরম ঝুঁকিতে রয়েছে। দেশের বনাঞ্চলগুলো ধ্বংস হয়ে যাওয়ার কারণে পরিবেশ ভারসাম্য হারাচ্ছে।  দেশের সংরক্ষিত বনাঞ্চল ও পাহাড়গুলো উজাড় করা যাবেনা। দেশকে প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে মুক্ত করে আগামীতে বাসযোগ্য বাংলাদেশ গড়তে হলে বাড়ীর ছাদ, বাগান, রাস্তা-ঘাটসহ সর্বত্র বেশী করে ফলজ, বনজ ও ওষধি গাছ লাগাতে হবে। দেশী-বিদেশী ফলমুলের চারা রোপনে আগ্রহী হতে হবে। আমাদের এ সুন্দর দেশ ও পরিবেশকে বাঁচাতে বৃক্ষরোপণের কোন বিকল্প নেই। আমাদের দেশের মোট আয়তনের ১৫.৫৮ শতাংশ বনভূমি রয়েছে। জলবায়ুর ঝুঁকি মোকাবেলায়  বৃক্ষ আচ্ছাদিত এলাকার উন্নয়ন করতে হবে। দেশের সাধারণ বনাঞ্চল ২২ শতাংশ থেকে ২৫ শতাংশে ও এক্সক্লুসিভ বনাঞ্চল ১৮ শতাংশে উন্নীত করতে হবে। তাহলে  প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ ১০টি উদ্যোগ বাস্তবায়ন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ, ২০৩০ সালে এসডিজি অর্জন ও ২০৪১ সালে  উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মান সম্ভব হবে।

সোমবার সকাল ১০টায়  নগরীর ফয়’স লেকস্থ রেঞ্জ সদর দপ্তরে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয় আয়োজিত বৃক্ষরোপণ কর্মসুচীর উদ্বোধনী অনুষ্টানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী চট্টগ্রাম রেঞ্জের পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত  বৃক্ষরোপণ কর্মসুচীর উদ্বোধনী অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাহিনীর মহানগর জোনের কমান্ড্যান্ট এএসএম আজিম উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাহিনীর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ আসাদুজ্জামান। 

আলোচনা সভা শেষে বৃক্ষরোপণ কর্মসুচী উপলক্ষে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপরিচালক মোঃ সামছুল আলমের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে রেঞ্জ সদর দপ্তরে এসে শেষ হয়। 

রেঞ্জ-ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ের বিভিন্ন পদবীর কর্মকর্তা, ৩০ আনসার ব্যাটালিয়ন চট্টগ্রাম জেলা, মহানগর আনসার, ১৫ আনসার ব্যাটালিয়ন, প্রত্যেক উপজেলা আনসার সদস্য ও  বিভিন্ন ইউনিয়নের ভাতা ভূক্তসহ প্রায়  ৯ শতাধিক সদস্য র‌্যালিতে অংশ নেন। সবশেষে  রেঞ্জ সদর দপ্তর মাঠে একটি ফলদ ও একটি ওষুধি গাছের চারা রোপনের মাধ্যমে বৃক্ষরোপণ কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি। 

উল্লেখ্য,  সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর)  বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী  চট্টগ্রাম জেলায় ৫ হাজারসহ সারাদেশে একযোগে  প্রায় দুই লক্ষ ফলদ ও ওষুধি গাছের চারা রোপন করেন।