Opu Hasnat

আজ ১৮ সেপ্টেম্বর বুধবার ২০১৯,

ব্রেকিং নিউজ

নিজ এলাকা গজারিয়ায় সংর্বধিত প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা মুন্সিগঞ্জ

নিজ এলাকা গজারিয়ায় সংর্বধিত প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত লাল সবুজের বাংলাদেশকে অপ্রতিরোধ্যে গতিতে উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে গেছে। এখন এগিয়ে চলছে দেশের সার্বিক উন্নয়নের কাজ। আর গজারিয়া উপজেলাও এই উন্নয়নের বাইরে নেই। এ উপজেলাকে শিল্প লে রূপ দেওয়ার কাজ চলছে। বাউশিয়ায় এপিআই শিল্পপার্কসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৬টার দিকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি বলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয়ের সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করেছি মুন্সীগঞ্জ জেলা সদর ও গজারিয়ার সঙ্গে সরাসরি সড়ক যোগাযোগস্থাপনের লক্ষ্যে মেঘনা নদীতে সেতু নির্মাণ করার জন্য। গজারিয়ার বধ্যভূমি সংরক্ষন ও উন্নয়নের লক্ষ্যে যেসব কাজ করতে হবে তার সবই করা হবে।

তিনি বলেন, তৃতীয়বার সংসদ  সদস্য নির্বাচিত করে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব অর্পন করায় বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জন্মস্থান গজারিয়া উপজেলাবাসী যে সম্মান দিয়েছেন, তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাপ্তি। এ অনুষ্ঠানে একাধিক মন্ত্রীকে উপস্থিত করা হয়নি। গজারিয়ার প্রতিটি মানুষ আমার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ন।

গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধুর চীফ সিকিউরিটি অফিসার ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। গজারিয়া উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও  উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ শেখ মো. লুৎফর রহমান ও গজারিয়া উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মো. সোলেয়মান দেওয়ান। এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনিছুজ্জামান আনিছ, যুগ্ন সম্পাদক অ্যাডভোকেট সোহানা তাহমিনা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. শফিউল্লাহ, মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব প্রমুখ।

এদিকে, নিজ এলাকার সন্তান প্রতিমন্ত্রী হওয়ায় মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায়  মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপিকে গণ সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। গজারিয়া উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে প্রতিমন্ত্রীকে নৌকা প্রতীকের ক্রেস্ট দেওয়া হয়েছে। গজারিয়া উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এলাকার গর্বিত সন্তাান মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপিকে গণ সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

অন্যদিকে, সংর্বধনা অনুষ্ঠানকে ঘিরে বৃহসস্পতিবার সকাল থেকেই দুরদুরান্ত থেকে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও সমর্থকরা গজারিয়া উপজেলা সদরের জড়ো হতে থাকে। বিকেল ৪ টায় গজারিয়া উপজেলা পরিষদ মাঠে গণসংবর্ধণার আয়োজন করা হলেও দুপুর ১টার দিকেই প্রখর রোদের তাপ মাড়িয়ে কানায় কানায় পরিপূর্ন হয়ে ওঠে গণ সংবর্ধনাস্থল। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা সেতু অতিক্রম করে গজারিয়া উপজেলা সীমানায় প্রবেশের পরই চোখে পড়ে নিজ এলাকার সন্তান ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা প্রতিমন্ত্রী হওয়ায় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বড় বড় তোড়ন, ব্যানার, ফেস্টুনসহ নানা বৈচিত্রের বিলবোর্ড। আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপির গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানকে ঘিরে দুই দিন আগে থেকেই ভবেরচর থেকে রসুলপুর পর্যন্ত উপজেলা পরিষদে যাওয়ার  খানা খন্দে ভরা সড়কটি বালি ও সুড়কি দিয়ে সংস্কার করেছে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। এছাড়া প্রতিমন্ত্রী আগমনকে ঘিরে গজারিয়া উপজেলায় বিভিন্ন পয়েন্টে ব্যানার, পোস্টার ও লিপলেটে ছেয়ে গেছে উপজেলার সর্বত্র।

গণসংবর্ধণা অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আগে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন ও সরকারি গজারিয়া কলেজের ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি। পরে তিনি উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের সভাকক্ষে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিমিয় সভা করে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড দ্রুত বাস্তবায়নে কাজ করে যাওয়ার তাগিদ দিয়েছেন। 

জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম, গজারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মো. হাসান সাদীসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগন।