Opu Hasnat

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

জাপায় ভাঙনের সুর, কাদেরকে পদ ছাড়ার আহ্বান রাজনীতি

জাপায় ভাঙনের সুর, কাদেরকে পদ ছাড়ার আহ্বান

দলের কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা করে জিএম কাদেরকে পদ ছাড়ার আহ্বান জানিয়েছেন দলের জ্যেষ্ঠ নেতা ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার (০৫ সেপ্টেম্বর) গুলশানে অবস্থিত বিরোধী উপনেতার বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান। একইসঙ্গে ছয় মাসের মধ্যে কাউন্সিলের ঘোষণা দেন আনিস।

বেগম রওশন এরশাদকে চেয়ারম্যান ঘোষণার মধ্য দিয়ে এরশাদের মৃত্যুর পরে আনুষ্ঠানিকভাবে দুভাগ হয়ে গেল এরশাদের জাতীয় পার্টি। দলের একটি অংশ রওশনের পক্ষে, আরেকটি অংশ জিএম কাদেরের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। রওশনের পক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর জাপা আর জিএম কাদেরের পক্ষে মহানগর দক্ষিণের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদককে দেখা গেছে। এভাবে সারা দেশে দলের নেতা-কর্মীরা দ্ভুাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘জিএম কাদের পার্টির কো-চেয়ারম্যান হিসেবে থাকবেন। যে প্রক্রিয়ায় তিনি নিজেকে পার্টির চেয়ারম্যান দাবি করছেন, সে প্রক্রিয়ায় গলদ রয়েছে। এরশাদের অসুস্থতা ও মৃত্যুর কারণে আমরা এ নিয়ে প্রশ্ন তুলিনি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, জিএম কাদের যা করেছেন, সবই অবৈধ। সর্বশেষ তিনি পার্লামেন্টারি বোর্ড গঠনে গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করেছেন। গঠনতন্ত্রে স্পষ্ট করে বলা আছে চেয়ারম্যান, মহাসচিবের বাইরে পার্লামেন্টারি বোর্ডে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সাত সদস্য থাকবেন।

জাপা ভেঙে গেল কিনা জানতে চাইলে আনিস বলেন, এতে পার্টি ভাঙবে না। জিএম কাদেরের উচিত দলে বিভক্তি না এনে কো-চেয়ারম্যান পদে ফিরে যাওয়া। যখন কাউন্সিল হবে তখন যদি সবাই তাকে চায় তাহলে তিনি চেয়ারম্যান হবেন।

এর আগে বিরোধীদলীয় উপনেতা জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ বলেন, ‘পার্টিতে কী হচ্ছে? জাতীয় পার্টি কী আবার ভাঙতে যাচ্ছে? অতীতে কিন্তু জাপা ভেঙেছে। আসুন সবাই মিলে পার্টিকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করি।

এ সময় দলের নতুন চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুল হক চুন্নু এমপি, সেলিম ওসমান এমপি, ফখরুল ইমাম এমপি, গোলাম কিবরিয়া টিপু এমপি, এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আবদুস সবুর আসুদ, নায়ক সোহেল রানা, সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, প্রেসিডিয়াম সদস্য সফিকুল ইসলাম সেন্টু, সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম ওমর, প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) খালেদ আখতার, স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সেক্রেটারি বেলাল হোসেনসহ বিপুলসংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।