Opu Hasnat

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

কালকিনিতে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা, পদ বঞ্চিতদের বিক্ষোভ মাদারীপুর

কালকিনিতে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা, পদ বঞ্চিতদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখার নবগঠিত কমিটি সোমবার রাতে ঘোষনা করা হয়। এ কমিটি গঠনের প্রতিবাদে পদ বঞ্চিত একাংশ ছাত্রলীগের কর্মী সমর্থকরা ট্যায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন। এ সময় তারা স্থানীয় আ'লীগের দলীয় কার্যালয়ে চেয়ার-টেবিল ভাংচুর করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকেই উপজেলা সদরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

জানাগেছে, স্থানীয় অডিটরিয়াম হলরুমে দুই মাস আগে উপজেলা , পৌর ও কলেজছাত্রলীগের সম্মেলন করা হয়। এ সম্মেলনের ২ মাস পরে সোমবার রাতে বদিউজ্জামান বাকামিন খানকে সভাপতি, সহ-সভাপতি ইফতেখার আলম রিশাদ ও শাহীন হোসেন ফকিরকে সাধারন সম্পাদক করে কালকিনি উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি, সাকিবুল ইসলাম খলিলকে সভাপতি, সহ-সভাপতি এস.এম.তুহিন ও আবু সাঈদ সরদার লিখনকে সাধারন সম্পাদক করে পৌর ছাত্রলীগের কমিটি  এবং মেহেদি হাসান রনিকে সভাপতি,সহ-সভাপতি বি.এম.নাইম ইসলাম ও মহিন হাওলাদারকে সাধারন সম্পাদক করে কালকিনি সৈয়দ আবুল হোসেন বিশ্ব বিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ কমিটি অনুমোদন করেন মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাসান অনিক ও ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক বায়েজিদ হাওলাদার। এ কমিটি ঘোষনার পর পরেই স্থানীয় এমপি আবদুস সোবহান গোলাপ সমর্থক পদ বঞ্চিত সাবেক কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক পলাশ বেপারী ও সাব্বির সরদারের নেতৃত্বে নতুন কমিটি মানিনা মানবো না শ্লোগানে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। পরে তারা উপজেলা আ'লীগের কার্যালয়ের সামনে ট্যায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ সভা করেন। এ সময় বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ কর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের চেয়ার টেবিল ভাংচুর করেন।

বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ নেতা পলাশ ও সাব্বির সরদার কঠিন হুশিয়ারী দিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, অযোগ্যদের দিয়ে কমিটি করায় আমরা বিক্ষোভ মিছিল ও আন্দোলন করেছি। আমাদের দাবি এ কমিটি ভেঙ্গে যোগ্যদের দিয়ে করা হোক। তানা হলে আগামীতে কঠিন আন্দোলন গড়ে তোলা  হবে।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হাসান অনিক বলেন, অনেকে দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রলীগের রাজনীতি করেও তাদের সেসন জটের সম্যসা রয়েছে। তারা হয়তো পদ না পেয়ে আবেগে বসত আন্দোলন করেছে। ধীরে ধীরে সব ঠিক হয়ে যাবে।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম মোল্লা বলেন, পদবঞ্চিতরা উত্তেজিত হলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিযন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি তাহমিনা সিদ্দিকী জানান, নিজেদের মধ্যে এই ঘটনা ঘটেছে। তবে পরে সব ঠিক হয়ে যাবে।