Opu Hasnat

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ২০১৯,

নাটোরে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় ৩ শিক্ষককে শাস্তি দাবি নাটোর

নাটোরে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় ৩ শিক্ষককে শাস্তি দাবি

নাটোর সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রীকে শিক্ষক যৌন নির্যাতন করার ঘটনায় প্রধান শিক্ষকসহ ৩ শিক্ষককে বদলী ও দৃস্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেছেন অভিভাবকরা। শনিবার বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে অভিবাবকদের মত বিনিময় সভায় অভিভাবকরা এই দাবি জানান।

গত ২৫ আগস্ট নাটোর সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের দিবা শিপটের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রীকে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে যৌন নির্যাতন করেন শারিরিক শিক্ষক আব্দুল হাকিম। এই ঘটনায় ওই দিন ওই ছাত্রীর অভিভাবক বিষয়টি প্রধান শিক্ষক আব্দুল মতিনের কাছে অভিযোগ করলেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি তিনি। ওই ছাত্রীর পরিবার প্রতিকার না পেয়ে ২৬ আগস্ট নাটোর থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ আব্দুল হাকিমকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করে। আব্দুল হাকিম গ্রেফতার হওয়ার পর গণিতের শিক্ষক সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধেও ছাত্রীদের যৌন হয়রানীর অভিযোগ উঠে। আর এই দুই শিক্ষকে মদদ দেয়া অভিযোগ উঠে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এতে করে বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন অভিভাবকরা। এরফলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে অভিভাবকদের সাথে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বিক্ষুদ্ধ অভিভাবক ছাত্রীদের নিরাপত্তা ও এই ৩ শিক্ষকের শাস্তি এবং বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার পরিবেশ তৈরীর দাবি জানান।

বিদ্যালয়টির সভাপতি ও নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ অভিভাবকদের কাছে যৌন হয়রানীর বিষয়টি এড়িয়ে যান। তবে তিনি অভিভাবকদের জানান প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। অন্যদিকে পুলিশ সুপার লিটন কুমার অভিভাবকদের জানান, যৌন নির্যাতনকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এই বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়টির সভাপতি ও নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ গণমাধ্যমের সাথে কথা বলতে চাননি। তবে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রমজান আলী আকন্দ জানান, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে ডিজি বরাবর তিনি আবেদন করেছেন।