Opu Hasnat

আজ ১৬ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০১৯,

বাঁশখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণাসহ ১৩ দফা দাবিতে মানববন্ধন চট্টগ্রাম

বাঁশখালী সমুদ্র সৈকতকে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণাসহ ১৩ দফা দাবিতে মানববন্ধন

জেলার বাঁশখালী সমুদ্র সৈকতের প্রবেশদ্বার রাস্তা সম্প্রসারণ, পর্যটকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও নৈরাজ্য বন্ধে প্রশাসনিক সেল গঠন, দর্শনার্থীদের জন্য মসজিদ নির্মাণ, পর্যাপ্ত সেনিটেশন ব্যবস্থাকরণ, দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার জন্য টুরিস্ট পুলিশপাড়ী নির্মাণ, অসুষ্ঠু ও অসামাজিক কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রণে সিসি ক্যামরা স্থাপন করা, টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ পূর্বক সৌন্দর্য্য বর্ধনে বৃক্ষ রোপণ ও পেইন্টিংকরণ, নির্দিষ্ট দূরত্বে যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলতে ডাস্টবিন বসানো, ঈষবধহ ঝবধ ইবধপয গড়ার লক্ষ্যে স্থীরকরণ ও জনসচেতনতায় বিলবোর্ড স্থাপন, টুরিস্ট জোন তৈরি করে যাবতীয় তথ্যগুলো শেয়ারের ব্যবস্থা গ্রহণ, পর্যটকদের পরিপূর্ণ সেবা নিশ্চিত করণে আবাসিক হোটেল নির্মাণ করা, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের জন্য স্পেশাল ফ্যাসিলিটি'র ব্যবস্থা করা এবং বাঁশখালী অন্যান্য নান্দনিক স্পট সমুহ যেমন- ইকোপার্ক সংস্কার, চা-বাগানসহ স্পটগুলোর সৌন্দর্য্য বর্ধনে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা সহ ১৩ দফা দাবি নিয়ে সমুদ্র সৈকতে বিশাল মানববন্ধনের আয়োজন করেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা বাঁশখালী উপজেলা উত্তর। 

সংগঠনের সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ শামসুল আরেফিন খালেদ এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ ইমরান খানের সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, এটি শুধু ছাত্রসেনার যৌক্তিক দাবি নয়, বাঁশখালীবাসীর প্রাণের দাবী উল্লেখ করে সরকার ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন বক্তারা। মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট বাঁশখালী উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন জননেতা মাওলানা আশেকুর রহমান, অ্যাডভোকেট দিদারে আলম, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, মাওলানা শওকত আলী কাদেরী, নাছির উদ্দীন কাদেরী। উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুবসেনা বাঁশখালী উপজেলার সভাপতি যুবনেতা শাহাব উদ্দীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ছাত্রসেনা উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মদ শফিউল বশর। প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রসেনার সহ সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা এইচ এম এনামুল হক। বিশেষ বক্তা ছিলেন মুহাম্মদ খাইরুল বশর, মুহাম্মদ শওকত আলী, ইঞ্জিনিয়ার তৌহিদুল আলম, আনোয়ারুল ইসলাম, গিয়াস উদ্দীন সাগর, মুহাম্মদ তমিজ উদ্দিন, ছাত্রনেতা মুহাম্মদ মামুন রেজা, হুমায়ুন কবির, নাছির উদ্দীন সুজন, খোরশেদ হাসেমী, সাজ্জাদ হোসাইন, মুনির কাদেরী, এইচ এম নেজাম উদ্দীন, জয়নাল আবেদীন, আব্দুল আলীম, জাহিদুল ইসলাম, সৈয়দ হালিম, খোরশেদুল আলম, মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, মুহাম্মদ মঈন, মুহাম্মদ মোজাম্মেল মুহাম্মদ মোদ্দাসির, মুহাম্মদ ফারুক আজম, মুহাম্মদ নেছার, মুহাম্মদ শহীদ রেজা, মুহাম্মদ তারেক আজীজ, মুহাম্মদ শাহজাহান প্রমুখ।