Opu Hasnat

আজ ১৬ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০১৯,

বোয়ালমারীতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২৫ ফরিদপুর

বোয়ালমারীতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২৫

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের নয়ানিপাড়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার (১৬ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে ১৫ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে উন্নত চিকিৎসার জন্য ৮জনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে গুনবহার বাগুয়ান নায়নীপাড়া ব্রীজের পাশে বিএনপি নেতা আ. মান্নান শেখের ভাই ১নং ওয়ার্ড বিএনপির সদস্য ওবায়দুর রহমানের নেতৃত্বে তার লোকজন উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আ. ওহাব মোল্যার চাচাতো ভাই কাইয়ূম হাজীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ ছাড়া মান্নান শেখের লোকজন গ্রামে বিভিন্নস্থানে ওহাব মোল্যার সমর্থকদের লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুই গ্রুপ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। 

এ সময় বিক্ষিপ্তভাবে তিনটি বসত ঘরে রামদা দিয়ে এলাপাথারি ভাবে কোপানো হয়। আহতদের মধ্যে ওহাব মোল্যার সমর্থক কাইয়ূম (৭০), রাজু (৩০), কালাম (৭৫), আবুল বাশার (২৬). সিরাজ (৫৫), সোহেল (২৭), মোহন (৭০), আহাদকে (২১) ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। 

এ ব্যাপারে আ. ওহাব মোল্যা মোবাইলে জানান, মান্নানের লোকজন পূর্বপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন এলাকায় তার সমর্থকদেরকে কুপিয়ে ও লাঠিপেটা করে গুরুতর জখম করেছে। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হবে বলে তিনি জানান।
 
মান্নান শেখের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি বলে তার বক্তব্য জানা যায়নি। 

ঘটনাস্থলে উপস্থিত থানার এসআই মো. মমিনুর রহমান বলেন, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শক্রতার জের ধরে বিক্ষিপ্তভাবে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।