Opu Hasnat

আজ ১৬ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০১৯,

ফরিদপুরে পৃথক দুটি সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৫, আহত ৩০ ফরিদপুর

ফরিদপুরে পৃথক দুটি সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৫, আহত ৩০

ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও সদরপুরে দুটি পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় এক নারীসহ ৫ জন নিহত হয়েছে। ফরিদপুর-ভাঙ্গা মহাসড়কের ভাঙ্গার নোয়াপাড়া ২নং ব্রিজের কাছে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছে। আর এ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০জন। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপি উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থলে নিহতরা হলেন- নগরকান্দা থানার রামনগর গ্রামের ধলা ফকিরের পুত্র লোকাল বাসের চালক রওশন ফকির (৪৫) ও রাজবাড়ীর পাচুরিয়া গ্রামের লক্ষণ কুন্ডর স্ত্রী বাসের মহিলা যাত্রী মিরা কুন্ড (৬০)। এদিকে দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অপর ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তার পরিচয় জানা যায়নি। 

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক আশরাফ উদ্দিন আহমদ জানান, সকালে ফরিদপুর-ভাঙ্গা মহাসড়কের নোয়াপাড়া ২নং ব্রিজের কাছে ফরিদপুর থেকে টেকেরহাটগামী একটি লোকাল বাসের সাথে অপরদিক থেকে বরিশাল থেকে রংপুরগামী তুহিন পরিবহনে সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই লোকাল বাসের ড্রাইভার রওশন ফকির ও বাসের মহিলা যাত্রী মিরা কুন্ড নিহত হয়। আর এ ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০জন। তাদেরকে ভাঙ্গা হাসপাতালে এবং গুরুতর আহতদের জরুরী ভিত্তিতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত তিন জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান। 

অপরদিকে, ফরিদপুরের সদরপুরের ঢেউখালী ইউনিয়নে চন্দ্রপাড়া বাবুরচর সড়কে কাচারী ডাঙ্গী গ্রামের ঝুমুরের বাড়ির সামনে বিকেলে মোটর সাইকেল চাপায় আব্দুল ছত্তার মোল্যা (৩৮) নামের এক পথচারী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। পরে আহত মোটর সাইকেলের চালক দেলোয়ার তালুকদার (৩০)কে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যায় রাতে। 

জানা গেছে, উপজেলার চরব্রাহ্মন্দী গ্রামের আমজাত তালুকদারের ছেলে দেলোয়ার তালুকদার তার দুই সহযোগীসহ বেপরোয়া গতিতে মোটর সাইকেল চালিয়ে বাবুরচর বাজারের দিকে আসার পথে বাবুরচর কাচারীডাঙ্গী গ্রামের ঝুমুরের বাড়ির সামনে উক্ত পথচারীকে চাপা দিলে এ ঘটনা ঘটে।