Opu Hasnat

আজ ২২ আগস্ট বৃহস্পতিবার ২০১৯,

জগন্নাথপুরে চামড়া বিক্রি করতে না পেরে মাটিতে পুতে দিলো মাদ্রাসা সুনামগঞ্জ

জগন্নাথপুরে চামড়া বিক্রি করতে না পেরে মাটিতে পুতে দিলো মাদ্রাসা

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর সাহারপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের সৈয়দপুর হাফিজিয়া হোসেনিয়া দারুল হাদিস মাদ্রাসায় বিভিন্ন জনের দান করা ৮০০টি গরুর চামড়া ও ৯৫টি ছাগল, বকরি ভেড়ার চামড়া বিক্রি করতে না পারায় মাদ্রাসা ক্যাম্পাসের পুকুর পাড়ে পুতে দিয়েছেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ। মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জানান, প্রতিবছরের মতো এবারও পবিত্র ঈদুল আযহার চামড়া সংগ্রহ করেছিল এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। সোমবার বিকেলে সংগ্রহ করা চামড়া নিলাম বিক্রির আয়োজন করলেও কোন চামড়া ব্যবসায়ী খরিদ করতে আসেননি। পরে সংগ্রহ করা কাচা চামড়া একটি জায়গা স্তুপ করে রাখেন তারা। 

বুধবার  কোন ব্যবসায়ী না আসায় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন চামড়া ব্যবসায়ীর সঙ্গে চামড়া বিক্রির জন্য যোগাযোগ করেন। তাদের মধ্যে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পাগলা বাজার এলাকার একজন ব্যবসায়ি প্রতিটি গরুর চামড়া ১২০ টাকা দাম নির্ধারণ করে পরে চামড়া কিনতে না আসেনি। ফলে চামড়ায় র্দুগন্ধ মাদ্রাসা ও আশপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়ছিল। এ কারণে সবার মতামত নিয়ে চামড়া গুলো মাটিতে গর্ত করে পুতে দেয়া হয়। 

এ ব্যাপারে মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা সৈয়দ ফখরুল ইসলাম বলেন, চামড়া গুলো বিক্রির জন্য অনেক চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু কোন ক্রেতা পাওয়া যায়নি। এতো চামড়া প্রক্রিয়াজাত করতে ৫০ হাজার টাকার লবণের প্রয়োজন। কিন্তু লবণ সংগ্রহ করলেই যে চামড়া বিক্রি করা যাবে তারও কোন নিশ্চয়তা না থাকায় চামড়া গুলো মাটিতে পুতে ফেলা হয়েছে। এছাড়া এক সঙ্গে এতো চামড়া লবণ দিয়ে সংরক্ষণ করার মতো জনবলও তাদের নেই। সবদিক থেকে অনিশ্চয়তার কারণেই চামড়া গুলো মাটিতে পুতে ফেলা হয়েছে। এতে মাদ্রাসার অনেক টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।