Opu Hasnat

আজ ৭ ডিসেম্বর শনিবার ২০১৯,

ঈদুল আযহা উপলক্ষে সৈয়দপুরে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ নীলফামারী

ঈদুল আযহা উপলক্ষে সৈয়দপুরে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ

সৈয়দপুর নীলফামারী থেকে সৈয়দা রুখসানা জামান শানু : নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নসহ পৌর এলাকার ১৫ টি ওয়ার্ডে দুস্থ ও হতদরিদ্র ৪৮ হাজার ৯৪৭টি পরিবারের মাঝে ভিজিএফ’ র (ভারনারেবল গ্রুপ ফিডিং) চাল বিতরণ শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) কামারপুকুর ও কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নে চাল বিতরণের এ কার্যক্রম চলে। গত বুধবার (৭ আগস্ট) থেকে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভার ওয়ার্ডগুলোতে ওইসব চাল বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়। উপজেলার বাঙ্গালীপুর, বোতলাগাড়ি ও খাতামধুপুর ইউনিয়ন এবং পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডগুলোতে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়। 

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তর সূত্র জানায়, পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সারাদেশের মত সৈয়দপুরে ৪৮ হাজার ৯৪৭টি পরিবারের মাঝে বিতরণের জন্য ৭৩৪.২০৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়। প্রতিটি পরিবারের জন্য ১৫ কেজি চাল বিতরণে বরাদ্দ করা ওইসব চালের ডিও ইতিমধ্যে ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা কর্তৃপক্ষের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, এবার উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে প্রতিটি পরিবারের জন্য ১৫ কেজি হিসেবে ৪৪ হাজার ৩২৬টি কার্ডের বিপরীতে ৬৬৪.৮৯০ মেট্রিক টন এবং পৌর এলাকায় ৪ হাজার ৬২১টি কার্ডের বিপরীতে ৬৯.৩১৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ হয়। এসবের মধ্যে কামারপুকুর ইউনিয়নে ৭ হাজার ৯৯০টি কার্ডের বিপরীতে ১১৯.৮৫০ মেট্রিক টন, কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নে ৯ হাজার ৯৬৮টি কার্ডের বিপরীতে ১৪৯.৫২০ মেটিক টন, বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নে ৬ হাজার ৫৭০টি কার্ডের বিপরীতে ৯৮.৫৫০ মেট্রিক টন, বোতলাগাড়ী ইউনিয়নে ১১ হাজার ৩৮৪টি কার্ডের বিপরীতে ১৭০.৭৬০ মেট্রিক টন এবং খাতামধুপুর ইউনিয়নে ৮ হাজার ৪১৪টি কার্ডের বিপরীতে ১২৬.২১০ মেট্রিক চাল বরাদ্দ করা হয়। এছাড়া পৌর এলাকায় ৪ হাজার ৬২১টি কার্ডের বিপরীতে ৬৯.৩১৫ মেট্রিক চাল মিলেছে বলে নিশ্চিত করেছে উপজেলা প্রকল্প বস্তবায়ন কর্মকর্তার দপ্তর।

এদিকে দুস্থদের মাঝে চাল বিতরণের যাবতীয় প্রস্ততি শেষে বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছে ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃপক্ষ। জনপ্রতিনিধিরা জানান, চাল বিতরণে গত ঈদুল ফিতরের মতো যাতে কোন প্রশ্নের সৃষ্টি না হয় সেজন্য ব্যাপক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বিতরণ কার্যক্রমে যাতে অনিয়ম না হয় সেজন্য ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্যদের তৎপর থাকতে বলা হয়েছে। এজন্য প্রকৃত দুস্থদের মাঝে কার্ড বিতরণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। চাল বিতরণের দিন কার্ড সংক্রান্ত জটিলতা এবং কোন অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না বলে জানিয়েছেন তারা।

এদিকে পৌরসভার পক্ষ থেকে দুস্থদের মাঝে সুষ্ঠুভাবে চাল বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পৌরসভা মেয়র অধ্যক্ষ মো. আমজাদ হোসেন সরকার এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। পৌরসভার সুত্র জানায়, চাল বিতরণ কর্মসূচিতে পৌর মেয়র মো. আমজাদ হোসেন সরকারের সার্বিক তদারকির কারণে পূর্বে কোন অনিয়ম হয়নি, এবারও হবে না। এজন্য পৌর কাউন্সিলরদের সতর্ক থাকতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।