Opu Hasnat

আজ ২১ অক্টোবর সোমবার ২০১৯,

কুমিল্লায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু নারী ও শিশুকুমিল্লা

কুমিল্লায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তাকে যৌতুকের জন্য হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তার পরিবার।

রোববার সকালে পেরিয়া ইউপির শ্রীফলিয়া গ্রামের মুন্সি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুমি আক্তার ওই গ্রামের প্রবাসি সোহেল হোসেন সোহাগের স্ত্রী ও আদ্রা উত্তর ইউপির মেরকট গ্রামের খোরশেদ আলমের মেয়ে। 

এ বিষয়ে নিহতের মা পারুল বেগম জানান, দেড় বছর পূর্বে শ্রীফলিয়া মুন্সি বাড়ির মাঈন উদ্দিনের বড় ছেলে সোহেল হোসেন সোহাগের সঙ্গে পারিবারিকভাবে সুমি আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় তারা যৌতুকের এক লাখ টাকা সোহাগের বাবা মাঈন উদ্দিনের কাছে দেন। ওই যৌতুকের টাকা তার বাবার কাছে দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয় সোহাগ। 

এ নিয়ে সোহাগ প্রায়ই সুমিকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করত। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ছয় মাস আগে সুমি তার বাবার বাড়ি মেরকটে চলে যায়। পরে পেরিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদের জিম্মাদারিতে সুমিকে তার শ্বশুরবাড়িতে পাঠানো হয়।  রবিবার সকালে খাটের উপর শোয়া অবস্থায় সুমির লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।
 
এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম পিপিএম বলেন, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে নিহতের গায়ে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।