Opu Hasnat

আজ ২৩ অক্টোবর বুধবার ২০১৯,

মাদরাসা শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় আটক ৩

মায়ের উপর প্রতিশোধ নিতেই হত্যা করা হয় মেয়েকে দাবি পুলিশের বাগেরহাট

মায়ের উপর প্রতিশোধ নিতেই হত্যা করা হয় মেয়েকে দাবি পুলিশের

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মাদরাসা শিক্ষার্থী হিরা আক্তার (১২) হত্যার ঘটনায় বৃদ্ধ দম্পতি ও তাদের পোতাকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন নিহত, হিরার প্রতিবেশী ৭৫ বছর বয়সী মোক্তার মৃধা, তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৬৫) এবং তাদের পোতা স্থানীয় বহরবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী হাসান রশিদ (১৩)। হাসান রশিদ তোফাজ্জেল মৃধার ছেলে। রবিবার (১৪ জুলাই) সকালে উপজেলার পশ্চিম বহরবুনিয়া গ্রাম থেকে মনোয়ারা বেগম এবং হাসান রশিদকে পরে বিকেলে মোংলা থেকে বৃদ্ধ মুক্তার মৃধাকে আটক করে পুলিশ।

রবিবার বিকেলে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বাগেরহাট পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, ২ জুলাই বিকেলে মোরেলগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বহরবুনিয়া গ্রামে নিজ ঘরে হিরা আক্তারকে হত্যা করে বিবস্ত্র অবস্থায় আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে আটককৃতরা। পরে ৩ জুলাই নিহতের মা নাসিমা বেগম বাদী হয়ে মোরেলগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। হত্যার চারদিন আগে নিহত হিরার মাকে অসৎ উদ্দেশ্যে জাপটে ধরে বৃদ্ধ মোক্তার মৃধা। তখন হিরার মা নাসিমা বেগম মোক্তারকে জুতোপেটা করেন। পরে মোক্তারের স্ত্রীর কাছে বিচার দেয় হিরার মা। এতে মোক্তার ও মোক্তারের স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়। নাসিমার উপর প্রতিশোধ নিতেই তার মেয়েকে হত্যা করে মোক্তার ও তার স্ত্রী। এদেরকে সহযোগিতা করেন তাদের পোতা হাসান রশিদ।

তিনি আরও বলেন, হত্যার কথা স্বীকার করে আটকৃতরা ১৬১ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছেন। আটককৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

নিহতের পিতা গাউস শেখ ও মাতা নাসিমা বেগম বলেন, হত্যাকারীরা আটক হয়েছে। যারা আমার অবুঝ শিশুকে হত্যা করেছে আমরা তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই।