Opu Hasnat

আজ ১৬ অক্টোবর বুধবার ২০১৯,

শ্রমিক সেজে গণধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী আলীমকে গ্রেফতার কুমিল্লা

শ্রমিক সেজে গণধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী আলীমকে গ্রেফতার

দেবীদ্বার থানা পুলিশ শ্রমিক সেজে গণধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী আলীমকে গ্রেফতার করেছে। বুধবার বিকেলে  দেীবদ্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবাহ উদ্দিন’র নেতৃত্বে উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মোঃ রুহুল আমিন, কনস্টেবল মোঃ মনির হোসেন অভিনব কৌশলে শ্রমিক সেজে সূর্য়পুর গ্রামের গণধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামী মোঃ আলিম(২৮)কে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার হওয়া আলিম সূর্জপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলাম’র ছেলে। 

উল্লেখ্য, যৌণনিপিড়নের ঘটনাটি গত ১৮ জানুয়ারী সংঘঠিত হলেও নানা প্রতিবন্ধকতা প্রতিপক্ষের ভিতি প্রদর্শনের কারনে মামলা দায়ের করার সাহস পায়নি। অবশেষে গত ১০ মে গৃহবধূ তার স্বামী সহ দেবীদ্বার থানায় আসেন এবং ভিক্টিম গৃহবধূ (১৯) বাদী হয়ে উপজেলার সূর্যপুর গ্রামের মৃতঃ শামসুল হক’র পুত্র মোঃ নবীরুল মেম্বার (৩৯), একই গ্রামের মোঃ আব্দুল হাকিম’র পুত্র মোঃ আকাশ (৩০), মোঃ সিরাজুল ইসলাম’র পুত্র মোঃ আলিম (২৮), মোঃ আঃ মালেক (মালুমিয়া)’র পুত্র মোঃ মোস্তফা, মুরাদনগর উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামের মোঃ বাবুল খাঁন’র পুত্র মোঃ শহিদ খাঁন প্রকাশ পাখি(৩২), সুলতান আহাম্মদ খন্দকার’র পুত্র মোঃ শমীম খন্দকার (২৮), অজ্ঞাতনামা আরো দু’জন সহ মোট ৮জনকে অভিযুক্ত করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যপারে দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ জহিরুল আনোয়ার জানান, ধর্ষনের ঘটনায় অভিযুক্ত ইউপি মেম্বার নবীরুল ও শহীদ খানকে ইতিমধ্যে আটক করে আদালতে হাজির করলে ধর্ষনের দায় স্বীকার করে ম্যাজিষ্ট্রেটের নিকট ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে। অদ্য আমার পুলিশ টিম শ্রমিক সেজে আরো একজন আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। অন্যন্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।