Opu Hasnat

আজ ২৭ জুন বৃহস্পতিবার ২০১৯,

নড়াইলে স্কুলের গাছ বিক্রিতে শিক্ষকের চাঁদাবাজি ! নড়াইল

নড়াইলে স্কুলের গাছ বিক্রিতে শিক্ষকের চাঁদাবাজি !

নড়াইল সদর উপজেলার শেখহাটি ইউনিয়নের গুয়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গাছ বিক্রিতে বাঁধা দিয়ে ২০ হাজার টাকা চাঁদা নিলেন ওই বিদ্যালয়েরই শিক্ষক তাপস পাঠক। জানা গেছে, বিদ্যালয়ের ৪তলা ভবন নির্মানের জন্য জায়গা নির্বাচন করার পর ওই স্থানে থাকা গাছ গত ১৯ মে কাটতে গেলে বাঁধা দেন সহকারি শিক্ষক তাপস পাঠক। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষক-কর্মচারীরা তাকে বোঝানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হন। গাছ কাটা বন্ধ করে দেন। এলাকার চিহিৃত মাদকাসক্ত সন্ত্রাসীদের এনে ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষক কর্মচারীদের ভয় ভীতি দেখাতে থাকেন তাপস পাঠক। এ নিয়ে শিক্ষকদের সাথে তার বাক বিতন্ডা হয়। তারপরও তিনি নিজেকে আওয়ামী লীগের বড় নেতা পরিচয় দিয়ে গাছ কাটা বাবদ ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকদের সাথে দূর্ব্যবহার করেন। অবশেষে বাধ্য হয়ে তাকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে দিতে হয়েছে বলে জানান ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। 

জানা গেছে, সহকারি শিক্ষক তাপস পাঠক শেখহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি এ পদে থাকার সুবাদে সরকারি দলের ভয় ভীতি দিয়ে সর্বক্ষেত্রে চাঁদাবাজি করেন ও ক্ষমতার দাপট দেখান। তিনি যে বিদ্যালয়ে চাকুরী করেন, সেই বিদ্যালয়ে চাঁদাবাজি করায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সহকারি শিক্ষক তাপস পাঠক বলেন, কোন চাঁদাবজি নয়, ছেলে পেলেদের জন্য ২০ হাজার টাকা নেয়া হয়েছে। 

প্রধান শিক্ষক রবীন্দ্রনাথ মন্ডল বলেন, নতুন ভবন নির্মানের জায়গা পরিষ্কার করার জন্য কিছু মেহগিনি গাছ বিক্রি করতে হয়েছে। যথাযথ নিয়ম মেনেই গাছ বিক্রি করা হয়েছে। সহকারি শিক্ষক তাপস পাঠক দলীয় লোকজন এনে গাছ বিক্রিতে বাঁধা দিয়েছিল। এদিকে দ্রুত কাজ না করলে ভবনের কাজে সমস্যা হতে পারে বা একেবারেই কাজ বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তাই তার চাহিদামত ২০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর