Opu Hasnat

আজ ১৮ জুন মঙ্গলবার ২০১৯,

সৈয়দপুরে গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা নারী ও শিশুনীলফামারী

সৈয়দপুরে গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা

সৈয়দপুর থেকে সৈয়দা রুখসানা জামান শানু :  যৌতুকলোভী স্বামী মেহেদি হাসান দুলু যৌতুকের টাকা না পেয়ে তার বিবাহিত স্ত্রী এক কনা সন্তানের জননী ইসমোতারাকে (২২) গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেছে। প্রাণে বেঁচে যাওয়া ওই গৃহবধু সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর বেলায় ইসমোতারার পিত্রালয় সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর বাজার সংলগ্ন দিনমজুর রফিকুল ইসলামের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে।

পারিবারিক ও এলাকাবাসী সূত্র হতে জানা যায়, প্রায় আড়াই বছর আগে ইসমোতারার বিয়ে হয় লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার উত্তর ডাউয়াবাড়ি গ্রামের কাশেম আলীর পুত্র মেহেদি হাসান দুলুর সাথে। বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে যাওয়ার পর যৌতুকের দেড় লাখ টাকা না পাওয়া পর্যন্ত ইসমোতারাকে আর পিত্রালয়ে না পাঠিয়ে শারিরীক নির্যাতন চালায় স্বামী মেহেদি। প্রায় এক মাসে পূর্বে যৌতুকের ২০ হাজার টাকা দেয়ার শর্তে ইসমোতারা ও তার কন্যা সন্তানকে নিয়ে শ্বশুড়ালয়ে আসে মেহেদি এবং স্ত্রীকে  শ্বশুড়ালয়ে রেখে সে নিরুদ্দেশ হয়। ঘটনার আগের দিন মেহেদি কুড়িগ্রাম থেকে শ্বশুড়ালয়ের বাড়ির পাশে ভগ্নিপতি আব্দুল মিয়ার (ট্রাক চালক) বাড়িতে আসে। বুধবার ভোর বেলায় সুযোগ বুঝে ইসমোতারার ঘরে ঢুকে গলায় ছুরি চালায়। এ সময় তার আত্মচিৎকারে অন্য ঘরে থাকা বাবা-মা বের হলে মেহেদি দৌড়ে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় তার ব্যবহৃত মোবাইল সেট ও একটি ব্যাগ পড়ে যায়। গ্রামবাসীর সহায়তায় গুরুতর আহত ইসমোতারাকে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করায়।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান পাশার সাথে দুপুরে কথা হলে তিনি এ ধরনের কোন অভিযোগ পাননি বলে জানান।