Opu Hasnat

আজ ২৬ আগস্ট সোমবার ২০১৯,

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শিমুলিয়া ঘাটে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা মুন্সিগঞ্জ

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শিমুলিয়া ঘাটে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে শিমুলিয়া ঘাট দিয়ে দক্ষিণ বঙ্গের ২১ জেলার যাত্রীদের নির্বিঘ্নে  চলাচল করতে বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে সোমবার থেকে দফায় দফায় জেলা আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক বিশেষ সভা করে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হলে মালিকদের জেল-জরিমানার করা হুঁশিয়ারী দিয়েছেন জেলার পুলিশ প্রশাসন।

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার বিশেষ এ আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা সভাপতিত্ব করেন।

এ সময় লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কাবিরুল ইসলাম জানান, ‘ঈদ উপলক্ষে বিশেষ এ সভায় বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঈদের তিন দিন আগে থেকে ট্রাক চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। ঈদ উপলক্ষে শিমুলিয়া ঘাট থেকে ঢাকার বাস ভাড়া ১০০ টাকা এবং শিমুলিয়া ঘাট থেকে কাঁঠালবাড়ী ঘাট পর্যন্ত স্পিডবোট ভাড়া ১৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। নৌরুটে ৮৭টি লঞ্চ, ১৭টি ফেরি ও দুই ঘাট মিলিয়ে ৫৪০টি স্পিডবোট চলাচল করবে। সন্ধ্যার পর স্পিডবোট ছাড়া হবে না। লাইফ জ্যাকেট ও ধারণ ক্ষমতা অনুযায়ী যাত্রী নিয়ে স্পিডবোট ঘাট ছাড়বে। চার জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ঘাট এলাকায় সার্বক্ষনিক থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আসন্ন ঈদে শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের দুর্ভোগের কোনও আশঙ্কা থাকবে না।

মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম জানান, চারশতাধিক পুলিশ সদস্য শিমুলিয়া ঘাটে নিয়োজিত থাকবে। ওয়াচ টাওয়ার, কন্ট্রোল রুম, প্রাথমিক চিকিৎসা রুম ইত্যাদি স্থাপন করা হবে। সিসিটিভি ক্যামেরায় পুরো ঘাট এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। যাত্রীদের থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হলে মালিকদের তাৎক্ষনিক জেল-জরিমানা করা হবে। যাত্রীরা যাতে নির্বিঘ্নে ঈদে বাড়ি যেতে পারেন সেজন্য ঘাট এলাকায় সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

সভায় এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আসমা শাহীন, লৌহজং ও শ্রীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।