Opu Hasnat

আজ ২৩ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০১৯,

পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান বসানো হচ্ছে বৃহস্পতিবার

সেতুর মূল অবকাঠামোর দৈর্ঘ্য দাঁড়াবে ১ হাজার ৩৫০ মিটার মুন্সিগঞ্জ

সেতুর মূল অবকাঠামোর দৈর্ঘ্য দাঁড়াবে ১ হাজার ৩৫০ মিটার

বৃহস্পতিবার পদ্মা সেতুর নবম স্প্যান নম্বর ‘৬-ডি’ বসানো হচ্ছে জাজিরা প্রান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর খুঁটির উপর। এ কারনে সেতু প্রকল্প এলাকায় এখন চলছে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী ও শ্রমিকদের শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততা।

স্প্যানটি চুরান্ত রঙের কাজ শেষে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের কুমারভোগ কনষ্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ক্রেন লাইনের মাধ্যমে বের করে মাওয়া প্রান্তের স্টক ইয়ার্ডের জেটিতে রাখা ছিল। যা মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের কুমারভোগ স্টক ইয়ার্ডের জেটি থেকে ৩৬শ’ টন ওজন ক্ষমতাসম্পন্ন ক্রেনবাহী জাহাজ ‘তিয়ান-ই’ ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ‘৬-ডি’ নম্বর নবম স্প্যানটি জাজিরা প্রান্তের খুঁটির উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে বুধবার সকালেই।

বৃহস্পতিবার জাজিরা প্রান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর খুঁটির ওপর নবম স্প্যান বসানোর পর মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ও জাজিরা উভয় প্রান্ত মিলিয়ে পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামোর দৈর্ঘ্য দাঁড়াবে ১ হাজার ৩৫০ মিটার।

পদ্মা সেতুর দায়িত্বশীল প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বুধবার জাজিরা প্রান্তে ৩৫ ও ৩৬ নম্বর খুঁটির ওপর অষ্টম স্প্যান স্থাপনের পরই ৩৪ ও ৩৫ নম্বর খুঁটিতে ‘৬-ডি’ নম্বর নবম স্প্যান বসানোর প্রস্তুতি ছিল। পরে দিনক্ষণ নির্ধারণ হওয়ায় প্রকল্প এলাকায় চলছে দিন-রাত কর্মযজ্ঞ। নবম এ স্প্যানটি বসানোর পর তার ধারাবাহিকতা রাখতে পর্যায়ক্রমে ৩৩ নম্বর খুঁটি পর্যন্ত স্প্যান বসানোর কাজ চলবে।

প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম আরও জানান, পদ্মা সেতুর ২৬২টি পাইলের মধ্যে গত মঙ্গলবার পর্যন্ত ২০৯ টি পাইল স্থাপন হয়ে গেছে। এর মধ্যে ১৮টি খাঁজকাটা পাইল স্ক্রিন গ্রাউডিং পদ্ধতিতে সফলভাবে স্থাপন করা হয়েছে। বাকি ৫৩টি পাইল স্থাপনের প্রক্রিয়া চলমান রাখা হয়েছে।  অন্যদিকে জাজিরা প্রান্তে সেতুর সর্বশেষ ৪২ নম্বর খুঁটি থেকে ৩৩ নম্বর খুঁটি পর্যন্ত স্প্যান বসানোর ধারাবাহিকতা রাখার সঙ্গে রেলওয়ে বক্স বসানোর কাজও চলছে। ইতিমধ্যে স্থাপন হওয়া স্প্যানের মধ্যে ১১৫টি রেলওয়ে বক্স বসে গেছে।

প্রসঙ্গত যে, ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল পদ্মা সেতু ৪২টি খুঁটির উপর নির্মিত হবে। এর মধ্যে মাওয়া প্রান্তে ২১টি ও জাজিরা প্রান্তে ২১টি। আর ৪২টি খুঁটির ওপর বসবে ৪১টি স্প্যান। এর মধ্যে ৪০টি খুঁটি থাকবে পানিতে আর ডাঙায় থাকবে ২টি খুঁটি। ডাঙায় থাকা দু’টি খুঁটি সংযোগ সড়কের সঙ্গে মূল সেতুকে যুক্ত করবে। পদ্মা সেতুর পুরোটাই নির্মিত হবে স্টিল ও কংক্রিট ষ্ট্রাকচারে। সেতুর ওপরে থাকবে কংক্রিটিং ঢালাইয়ের চার লেনের মহাসড়ক আর তার নিচ দিয়ে রেললাইন যাবে।