Opu Hasnat

আজ ২৬ মার্চ মঙ্গলবার ২০১৯,

যুবলীগ নেতার কান্ড!

সিরাজদিখানে দলিল লেখকের অফিস ভাঙ্গচুরের অভিযোগ মুন্সিগঞ্জ

সিরাজদিখানে দলিল লেখকের অফিস ভাঙ্গচুরের অভিযোগ

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে দলিল লেখকের অফিসে ঢুকে ভাঙ্গচুর ও হুমকী দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, এমন কান্ড ঘটিয়েছে স্থানীয় যুবলীগ নেতা আহসানুল ইসলাম আমিন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার তালতলা বাজারে দলিল লেখক পাঠান ফরমান উদ্দিনের অফিসে। 

পাঠান ফরমান উদ্দিন জানান, মালখানগর ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম আমিন বুধবার রাতে আমাকে টেলিফোনে হুমকী দেয় তোর হাত-পা ভেঙ্গে দেওয়া উপরের অর্ডার আছে। কারণ জানতে চাইলে বলে কাল (বৃহস্পতিবার) সকালে তোর অফিসে আসতেছি হাত-পা ভাঙ্গার জন্য তখনই বুঝতে পারবি। 

পরে বৃহস্পতিবার সকালে এসে অফিস রুমের মধ্যের দরজার লক লাথি মেরে ভেঙ্গে ফেলে। এরপর ভীতরের রুমে ঢুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও কেতলী, কাপ-প্রীজ, গ্লাস ও প্লেট ভাঙ্চুর করে। উপস্থিত তিনজন লোক তাকে থামানোর চেষ্টা করে। তখন সে বলে তুই আনুকে (আনোয়ার হোসেন) দিয়ে মালখানগর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (নায়েব) ইফতে খায়রুল বাসার খসরু কে ফোন দেওয়াইছছ কেন? এরপর বাজারের লোকজন ভীর করলে সে মেরে ফেরার হুমকী দিয়ে চলে যায়। বিষয়টি আমি স্থানীয় বাজার কমিটির গণ্যমান্য ব্যাক্তি ও মেম্বার চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি।  

এ ব্যাপারে উপজেলার মালখানগর ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম আমিন বলেন, বিষয়টি সঠিক না। আমার এক আত্মীয় একটি জমির খাজনার বেপারে দলিল লেখক ফরমানের কাছে দিয়েছে। সে দীর্ঘদিন গড়িমসি করায় তাকে আমি তার বাড়িতে যাই। তবে কোন ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৃহস্পতিবার রাত সারে ৭টার দিকে বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি জানান, মালখানগর ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম আমিন যুবলীগের প্রভাব খাটিয়ে সিরাজদিখানে দলিল লেখক ফরমান উদ্দিনের অফিসে ঢুকে ভাঙ্গচুর করে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটিয়েছে তাতে আওয়ামীলীগের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। তবে এ ঘটনায় আমরা বাজার কমিটি তার বিরুদ্ধে যথাযথ কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করবো। যেন সে ভবিষ্যতে এ ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে না পারে।   

এ প্রসঙ্গে সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, সন্ত্রাসী যে কোন দলেরই হোক না কেন তার অপরাধের বিচার হতেই হবে। ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম আমিন যুবলীগের প্রভাব খাটিয়ে সিরাজদিখানে দলিল লেখক ফরমান উদ্দিনের অফিসে ঢুকে ভাঙ্গচুর করার অপরাধে তাকে উপযুক্ত বিচার করা হবে। প্রয়োজনে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।