Opu Hasnat

আজ ১৯ মার্চ মঙ্গলবার ২০১৯,

পরাজিত কেউ জ্বালাও-পোড়াও করলে এগুলো ফৌজদারী অপরাধ সুনামগঞ্জ

পরাজিত কেউ জ্বালাও-পোড়াও করলে এগুলো ফৌজদারী অপরাধ

সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিন সুনামগঞ্জ ও জগন্নাথপুর) আসনের সংসদ সদস্য ও পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান বলেছেন, হাওরের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ মমত্ববোধ আছে। কারণ হাওর অঞ্চল সব সময় অবহেলিত বঞ্চিত, এর আগের বিএনপির সরকারগুলো মানুষের কল্যাণে কাজ  করেনি। তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  হাওর এলাকার মানুষের প্রতি নজর আছে এবং ইতিমধ্যে অনেক কাজ করেছেন। 

তিনি বিএনপির নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দের আন্দোলনের হুমকি প্রসঙ্গে বলেন, কেহ যদি নির্বাচনে পরাজিত হয়ে আন্দোলন, সংগ্রাম জ্বালাও পোড়াও ঘেরাও নাশকতামূলক কর্মকান্ড করেন এগুলো ফৌজদারী অপরাধ সাধারন একজন নাগরিক হিসেবে বলছি। তিনি বলেন আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেহ যদি নাশকতামূলক কাজ করে বাসে আগুন দেয়, গাড়ি ভাঙ্গে তার বিরুদ্ধেও প্রচলিত আইনে মামলা হবে। সে যে দলেরই হোক যে অপরাধ করবে তাকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে। 

শুক্রবার বিকেল ৪টায় মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী  আলহাজ্ব এম এ মান্নান তার জন্মস্থান নির্বাচনী এলাকা দক্ষিণ সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ নিজ বাসভবণে এসে পৌছলে সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ, কৃষকলীগ, সুনামগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ফোরাম, জেলা বিড়ি ভোক্তাপক্ষসহ সর্বস্তরের জনসাধারন তাকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

পরে বিকাল ৫টায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের আয়োজনে শহরের এফ আই ভি ডিবি হলরুমে তাকে এক সংবর্ধনা প্রধান করা হয়। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত অতিথি পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী আবুল কালাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শফি উল্ল্যা, জেলা শিক্ষা অফিসার পঞ্চানন বালা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী। এছাড়াও মন্ত্রীকে ফুলের শুভেচ্ছা জানান সুনামগঞ্জ জেলা উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আব্দুল হেকিম, সিনিয়র সহ সভাপতি হাজী তহুর আলী, সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বাছিত সুজন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফজলে রাব্বী স্মরণ, মন্ত্রীর রাজনৈতিক সবিচ মোঃ আবুল হাসনাত, জুয়েল আহমেদ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এড. বুরহান উদ্দিন দোলন, সিনিয়র সহ সভাপতি প্রবাষক মোঃ নুর হোসেন, সাধারন মণিরুজ্জামান সুজন, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ ফয়জুর রহমান, উপজেলা  শ্রমিকলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর