Opu Hasnat

আজ ২২ নভেম্বর শুক্রবার ২০১৯,

মাটি খুঁড়তেই মিলল ১৪১ ভরি স্বর্ণালংকার ব্রাহ্মনবাড়িয়া

মাটি খুঁড়তেই মিলল ১৪১ ভরি স্বর্ণালংকার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া ১৮০ ভরি স্বর্ণালংকার ও সাড়ে ৮ লাখ টাকার মধ্যে ১৪১ ভরি স্বর্ণালংকার উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে উপজেলার বণিকপাড়া এলাকার একটি পুকুরপাড়ে মাটি খুঁড়ে স্বর্ণালংকারগুলো উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় সাঈদুল হক (৪০) ও এমরান খাঁ (৩৫) নামে দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের বাড়ি ওই উপজেলার কুট্টাপাড়া ও বড্ডাপাড়া এলাকায়।


পুরো অভিযানটি পরিচালনা করা হয়েছে সরাইল সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান ফকিরের নেতৃত্বে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার বিজয়নগর উপজেলার চান্দুরা এলাকায় একটি বাসে অভিযান চালিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত সাঈদুল ও এমরানকে আটক করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা জানায় ছিনতাই করা স্বর্ণালংকারগুলো উপজেলার বণিকপাড়া এলাকার নিত্য তলাপাত্রের বাড়িতে রাখা আছে। তিনিও ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত। তবে শুক্রবার সকালেই তিনি ভারতে পালিয়ে গেছেন। পরে তার পরিবারের লোকজনের দেয়া তথ্যমতে বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরপাড়ে মাটি খুঁড়ে ১৪১ ভরি স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মো. মনিরুজ্জামান ফকির বিষয়টি নিশ্চিত করে  জানান, ছিনতাই হওয়া বাকি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাগুলো উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ধারণা করা হচ্ছে কিছু টাকা নিজরদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করে বাকি টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে নিত্য তলাপাত্র ভারতে পালিয়ে গেছেন।

এর আগে গত (১৩ নভেম্বর) মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সরাইল বাজারের আপন শিল্পালয়ের মালিক বিষ্ণু বণিক রিকশাযোগে ১৮০ ভরি স্বর্ণালংকার ও সাড়ে ৮ লাখ টাকা নিয়ে নিজ বাড়ি বণিকপাড়া যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে একদল ছিনতাইকারী তার চোখে মরিচের গুড়া দিয়ে তার সঙ্গে থাকা স্বর্ণালংকার ও টাকাগুলো ছিনিয়ে নেয়।