Opu Hasnat

আজ ১১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ২০১৮,

সুনামগঞ্জের সেনা সদস্যের জায়গা জোরপূর্বক দখল সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জের সেনা সদস্যের জায়গা জোরপূর্বক দখল

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টাঙ্গিয়ে জোরপুর্বকভাবে এক অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যের রেকর্ডিও জায়গা দখলের  পায়ঁতারায় সদর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের। অভিযোগকারী অবসর প্রাপ্ত সেনাসদস্য মো: আলেখ রাজা গত  ১৪ নভেম্বর একই ইউনিয়নের জাহাঙ্গীরনগর গ্রামের ভূমিখেকো ৬ জনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দায়ের করেছেন।  আলেখ রাজা সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে। 

অভিযুক্তরা হলেন জাহাঙ্গীরনগর গ্রামের মৃত আব্দুস সালামের পুত্র আবু সাঈদ(৫৫), সুলতান মিয়ার ছেলে আবুল মিয়া (৪০), আবু সায়েদ (৩৮), মৃত জব্বর আলীর ছেলে সাহাব উদ্দিন বয়াতি(৫৫), ওয়াহেদ আলী পুত্র ইরন মিয়া(৪৫) এবং মৃত জব্বর মিয়ার ছেলে নাছু মিয়া(৫৫)প্রমুখ। 

স্থানীয় ও অভিযোগ সুত্রে যানা যায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য মো: আলেখ রাজা দীর্ঘদিন ধরে পরিবার পরিজন নিয়ে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বক পয়েন্ট এলাকায় বসবাস করে আসছেন এবং তাহার নিজ গ্রামের রেকর্ডিও পুরো জায়গায় ষ্টীলের তার দিয়ে বেড়া লাগিয়ে গেইট তালাবদ্ধ করে রেখে দেন। তিনি গ্রামের ঐ জায়গাটিতে পরিবার পরিজন নিয়ে মাঝে মধ্যে সেখানে যাওয়া আসা করেন। 

কিন্তু গত ১৪ নভেম্বর তাহার অনুপস্থিতে উল্লেখিত তার জায়গাতে অভিযুক্ত ভূমিখেকোরা বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি টাঙ্গিয়ে গুটি কয়েক নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে অন্যায় ভাবে ঐ সেনা সদস্যের সীমানা তারের ভেড়া ভাংচুর করে সরিয়ে ফেলে এবং ঐ জায়গাতে লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির মূল্যবান বনজ ও ফলজ গাছ রাতের আধাঁরে কেটে নিয়ে রাতারাতি একটি চেলাঘর নির্মান করে ভূমিখেকোরা। তারা ঐ সেনা সদস্যের জায়গাতে অবৈধভাবে স্থাপনা বানিয়ে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি টাঙ্গিয়ে সরকারী দলের অফিস করেছেন বলে এলাকায় প্রচার প্রচারনা চালাতে থাকেন। সেনা সদস্যের খরিদা জায়গাতে ভূমিখেকোরা অবৈধভাবে স্থাপনা বানানো নিয়ে এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে ।

অভিযোগ পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপরে সদর মডেল থানার এস আই মোঃ জালালের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্য সরেজমিনে ঘটনাস্থল  পরিদর্শন করেন এবং স্থানীয় একাধিক লোকজনের সাথে কথা বলেন। তিনি জোর জবর দখল করা এক সেনা সদস্যর জায়গাতে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি টাঙ্গিয়ে  সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট কারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনসহ  ঐ ছবিগুলো সরানোর নির্দেশ প্রদান করে আসেন। 

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর মডেল থানার এস আই মোঃ জালাল জানান,তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয়পক্ষকে জায়গার প্রয়োজনীয় মালিকাধীন কাগজপত্র নিয়ে স্বশরীরে থানায় উপস্থিত থাকার কথা বলা হয়েছে বলে জানান। 

 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর