Opu Hasnat

আজ ১৪ নভেম্বর বুধবার ২০১৮,

ঢাকায় ইউরোস্টার ক্রিকেট কার্নিভাল ১৬-১৭ নভেম্বর খেলাধুলা

ঢাকায় ইউরোস্টার ক্রিকেট কার্নিভাল ১৬-১৭ নভেম্বর

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের পর এবারই প্রথমবারের মতো ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইউরোস্টার ক্রিকেট কার্নিভাল ২০১৮। আগামি ১৬ ও ১৭ নভেম্বর দুই দিনব্যাপী এই টুর্নামেন্টে ১২টি দল অংশ নিচ্ছে।

রাজধানীর উত্তরায় আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) মাঠে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টুর্নামেন্টের সব খেলোয়াড়ই  ২০০২ সালে এসএসসি ও ২০০৪ সালে এইচএসসি উত্তীর্ণ। তারা দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পাস করেছেন। এদের মধ্যে অনেকেই এখন চিকিৎসক, প্রকৌশলী, আইনজীবী, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, আইটি বিশেষজ্ঞ কিংবা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে নিজ মেধার স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছেন।

দেশের নানাপ্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ব্যাচমেটদের একত্রিত করতে ২০১২ সালে ফেসবুকে একটি গ্রুপ খোলা হয়। গ্রুপের সদস্য সংখ্যা এখন ৪০ হাজার ছাড়িয়েছে। তারা সবাই ২০০২-২০০৪ সালে যথাক্রমে এসএসসি-এইচএসসি উত্তীর্ণ।

খেলাধুলা ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক কাজ করে যাচ্ছে ফেসবুকভিত্তিক এই গ্রুপটি । যে সময়ে মানুষের মাঝে একাকীত্ব এবং স্বার্থপরতার ছড়াছড়ি অথবা যান্ত্রিক জীবনের মাঝে নেই কোনও আনন্দ সেসময়ে নানা আয়োজনের মাধ্যমে বন্ধুদের মাঝে একটু হাসি ফোটাতে কাজ করে যাচ্ছে এসএসসি ২০০২ ও এইচএসসি ২০০৪ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

তাদের আড্ডা হৈ-হুল্লোড় আর আনন্দ আয়োজনে নিমিষেই দূর হয়ে যাচ্ছে জীবনের একঘেয়েমি ভাব। দূর আকাশে হারিয়ে যাচ্ছে একাকীত্ব। এভাবেই তারা ফিরে পাচ্ছেন সেই হারিয়ে যাওয়া শৈশবের চঞ্চলতা।

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের পর এবার ঢাকায় শুরু হচ্ছে ক্রিকেট কার্নিভাল। এই টুর্নামেন্টের উত্তাপ  শুধু দেশের আনাচে-কানাচে নয়, ছড়িয়ে পড়েছে দেশের বাইরেও। বিদেশ বিভুঁয়ে থাকা প্রবাসী ব্যাচমেটদের মাঝেও উৎসব আমেজ বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে ঢাকার উত্তরার বাসিন্দা ও বর্তমানে দুবাইয়ের পোশাক ব্যবসায়ী মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন জানালেন, ক্রিকেট আমার প্রিয় খেলা। দেশে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে আমিও কার্নিভালে অংশ নিতাম। তবে যেখানেই থাকি বন্ধুদের ভীষণ মিস করি। ঢাকায় অনুষ্ঠিত ক্রিকেট কার্নিভালে প্রিয় দল ‘উত্তরা এম্পেররস’-এর জন্য শুভ কামনা জানাচ্ছি।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত ইউরোস্টার ক্রিকেট কার্নিভালে অংশ নেওয়া ১২টি দলের অন্যতম হচ্ছে ‘উত্তরা ইমপেরোরস’। দলের অধিনায়ক ফয়সাল বিন আলম বলেন, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মত দল ‘উত্তরা ইমপেরোরস’। সেই অনুসারেই খেলোয়াড় নির্বাচন করা হয়েছে। প্রতিদিনই ভোরে দলের প্রাকটিস শুরু হয়। চলে দুপুর পর্যন্ত। আমাদের এই পরিশ্রম সফল হবে, ইনশা আল্লাহ।

এদিকে দলের ম্যানেজার স্মাইলি সুমা বলেন, খেলা হবে ব্যাটে বলে আর লড়াই হবে স্কোর বোর্ডে। প্রতিপক্ষের প্রতিটি খেলোয়াড়কে আমরা সমান গুরুত্বের চোখে দেখছি। জয়ের জন্যই আমরা প্রতিটি খেলায় মাঠে নামবো।

‘উত্তরা ইমপেরোরস’ দলের ম্যানেজার হিসেবে আছেন স্মাইলি সুমা। খেলোয়াড়রা হলেন,  ফয়সাল বিন আলম (অধিনায়ক), আল জাজিরা নাইয়ান, শাইখুল ইসলাম সাব্বির, অরুণ দাস, নাজমুল হক সুমন, শেজাউল হাবিব, মির্জা রিজু, নাহিয়ান সাইদ, মোহাম্মদ শামসুল আরেফিন, শরিফ ওমর আরেফিন শাওন, রবিন চৌধুরী, সৈয়দ আহসানুল আদিল, নোবেল ও জুনায়েদ হোসেন। এছাড়া টিমের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে আছেন নুসরাত জাহান বিনু, সালসাবিল অর্ণব, তোহা রহমান, মার্চেন্ট লিংকন, মাসুদ বকশী, সাদি মোহাম্মদ, যাকিয়া আফরিন নিপা, মোহাম্মদ সালাউদ্দিন।

‘উত্তরা ইমপেরোরস’ দলটির সার্বিক কার্যক্রম স্পন্সর করেছেন ‘শান্তা বিশ্বাস-পি এস গ্রুপ। পুরো টুর্নামেন্টের মিডিয়া পার্টনার দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ ও তিতাস জার্নাল ডটকম।

ঢাকার বিভিন্ন এলাকার ১২টি দল নিয়ে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দলগুলো হচ্ছে,  মতিঝিল কর্পোরেট জায়ান্ট,  হোম অব ক্রিকেট-ব্যাটল অব মিরপুর, ওল্ড ঢাকা গ্লাডিয়েটরস, নারায়নগঞ্জ ইউনাইটেড, উত্তরা ইমপেরোরস,  বাংলামটর এভেঞ্জারস,  স্পারটান স্ট্রাইকারস, সার্কিট হাউজ ইগলস,  ডিএমএস সুলতানস, নওয়াবস অব ঢাকা, কিংস অব গাজীপুর, সাভার ব্লাস্ট।