Opu Hasnat

আজ ১৭ নভেম্বর শনিবার ২০১৮,

সুনামগঞ্জের ৬৩ পরিবার পেল নতুন ঘর সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জের ৬৩ পরিবার পেল নতুন ঘর

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রধিকার প্রকল্প আশ্রয়ণ-২ এর আওতায় হতদরিদ্র ৬৩টি পরিবার নতুন টিনের ঘর পেয়েছে। যাদের জমি আছে কিন্তু ঘর নাই এসব পরিবারকে ওই প্রকল্পের আওতায় এসব ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয়েছে এক লাখ টাকা। 

নতুন ঘরের চাবি হস্তান্তর উপলক্ষে গতকাল বুধবার বিকালে জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ। 

জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম আল ইমরানের সভাপতিত্বে ও সংস্কৃতিকর্মী জামিল আহমদে জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শামসুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী তালুকদার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. শাহাদৎ হোসেন ভুইয়া, ফেনারবাঁক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু তালুকদার প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জামালগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ মাহমুদ সাজীদ, বেহেলী ইউপি চেয়ারম্যান অসীম তালুকদার, ভীমখালী ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল আহমদ, জামালগঞ্জ উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান রজব আলী, জেলা কৃষক লীগের সদস্যসচিব বিন্দু তালুকদার, ফেনারবাঁক ইউপি সচিব অজিত কুমার রায়, জামালগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি অঞ্জন পুরকায়স্থ, সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি ওয়ালী উল্লাহ সরকার, জামালগঞ্জ উত্তর ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান প্রমুখ। 

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ ও অন্যরা এর আগে সদর ইউনিয়নের শাহপুর গ্রামে রেনু বেগমের বাড়িতে গিয়ে ফিতা কেটে ওই ঘরে প্রবেশ করেন। পুরো বাড়িটি রঙিন বেলুন অন্যান্য সামগ্রী দিয়ে সাজানো ছিল। 

দিনমজুর সবুজ মিয়ার স্ত্রী রেনু বেগম বলেন,‘ আগে ত কোনো ঘর আছিল না। এই ঘর পাইয়া আমরা খুব খুশি। প্রধানমন্ত্রী নতুন ঘর দিছইন, তাইনের লাগি দোয়া করমু।’ একইভাবে ঘর নতুন ঘর পেয়ে খুশি উপজেলার ভীমখালি ইউনিয়নের ভীমখালি গ্রামের বিধবা কাজলী রানী দাস, ফেনারবাক ইউনিয়ন পরিষদের ফেনারবাক গ্রামের দিনমজুর গিরিশ সরকার।

জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম আল ইমরান জানান, উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের ৯০টি পরিবারকে ঘর তৈরি করে দেওয়া হবে। এর মধ্যে ৬৩টি পরিবারকে বুধবার নতুন ঘরের চাবি দেওয়া হয়েছে। বাকি ঘরগুলো তৈরির কাজ চলছে। ঘর প্রস্তুত হলে তাদেরও চাবি দিয়ে দেওয়া হবে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর