Opu Hasnat

আজ ১৪ নভেম্বর বুধবার ২০১৮,

আমরাও রেডি : মন্ত্রিপরিষদ সচিব জাতীয়

আমরাও রেডি : মন্ত্রিপরিষদ সচিব

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের মাধ্যমে নির্বাচনকালীন মন্ত্রিসভা গঠন-সংক্রান্ত কার্যক্রম সম্পন্নের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তুত। মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক নিয়ে ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠক শেষে গণভবনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার টেকনোক্র্যান্ট (সংসদ সদস্য না হয়েও মন্ত্রী) মন্ত্রীদের পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন।

বর্তমান মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী ছাড়া ৩৩ জন মন্ত্রী, ১৭ জন প্রতিমন্ত্রী, দুজন উপ-মন্ত্রী রয়েছেন। এর মধ্যে টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী চারজন। তারা হলেন- ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী মতিউর রহমান, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

আজকের বৈঠক বর্তমান সরকারের শেষ মন্ত্রিসভা বৈঠক কি না- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘অন্তর্বর্তী সরকার বলেন, আর যাই বলেন, এই সময়ে মন্ত্রিসভা বৈঠক বাধাগ্রস্ত হয় না, এটা চলতে থাকবে। কোনো বাইন্ডিং (বাধা) নেই।’
 
টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী যারা পদত্যাগ করবেন সেই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে কত সময় লাগবে- এ বিষয়ে শফিউল আলম বলেন, ‘মন্ত্রিসভা সংকুচিত করা হবে কি-না, এখন পর্যন্ত আমি সেটা জানি না। আমাকে অবহিত করা হয়নি। জানলে আপনাদের জানাব।’

আপনি যদি ঘণ্টা খানেকের মধ্যে নির্দেশনা পান তাহলে সেই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে কতক্ষণ লাগবে- এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘না, খুব বেশি সময় লাগে না। আমরা সামারি করে পাঠিয়ে দেব, মহামান্য (রাষ্ট্রপতি) হয়ে চলে আসবে।’

আপনাদের প্রস্তুতি তো আছে- জানতে চাইলে শফিউল আলম বলেন, ‘আমরা রেডি, এগুলোর ব্যাপারে।’
 
প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে গণভবনে ফিরে মন্ত্রিসভার টেকনোক্র্যাট সদস্যদের পদত্যাগের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘আজকের মন্ত্রিসভার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি শেষে অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগ করতে নির্দেশ দিয়েছেন, অন্যরা স্বপদে বহাল থাকবেন। তাদের পদত্যাগ করতে হবে না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জোটের বিষয়ে আমাদের দফায় দফায় বসতে হবে। এখন আমাদের এঙ্গেজ থাকার কোনো সুযোগ নেই। সংলাপ যখন শেষ হবে তখন প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের সামনে একটা স্পিচ দেবেন। সংলাপের ফলাফলের ভিত্তিতে ৮ তারিখ দুপুর ১২টায় গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

৭ নভেম্বরের পর আওয়ামী লীগ আর কোনো সংলাপে যাবে না বলেও জানান তিনি।

আজকের মন্ত্রিসভার বৈঠক সূত্রে জানা যায়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর মন্ত্রীদের সরকারি সুযোগ-সুবিধা না নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আইন অনুযায়ী সবাই নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলবেন। সরকারি গাড়ি ব্যবহারসহ কোনো ধরনের সরকারি সুযোগ-সুবিধা নেবেন না।